Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

হোয়াইট হাউসে ইফতার-নৈশভোজের দীর্ঘদিনের প্রথা ভাঙলেন ট্রাম্প

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: হোয়াইট হাউসে প্রথম ইফতার নৈশভোজ হয়েছিল ১৮০৫ সালে। এরপর ১৯৯৬ সালে সাবেক ফার্স্ট লেডি হিলারি ক্লিনটনের অধীনে শুরু হয় প্রতিবছর ইফতার ডিনার আয়োজনের রীতি।

মজান মাস শেষে ঈদ আগমন উদযাপনে এ আয়োজন করা হতো। কিন্তু এবারে দুদশকের প্রথা ভাঙলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার সরকার এবারে রমজানের শেষে ইফতার ডিনার আয়োজন করেনি। এ খবর দিয়েছে ইন্ডিপেন্ডেন্ট ও সিএনএন।

খবরে বলা হয়, পূর্ববর্তী তিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন, জর্জ ডব্লিউ বুশ এবং বারাক ওবামা প্রশাসন প্রতি বছর এটা পালন করতো। হোয়াইট হাউস কর্মকর্তারা কয়েক মাস ধরে ওই অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা করতেন।

এতে মুসলিম সম্প্রদায়ের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত থাকতেন। এছাড়াও যোগ দিতেন কংগ্রেসের সদস্যরা এবং মুসলিম দেশগুলোর কুটনীতিকরা। এর পরিবর্তে এ বছর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া এক বিবৃতিতে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ‘উষ্ণ শুভেচ্ছা’ জানিয়েছেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনও প্রথা ভেঙেছেন। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অনুষ্ঠান আয়োজনে মন্ত্রণালয়ের রিলিজিওন ও গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কার্যালয়ের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছেন তিনি। এ বিষয়ে অবগত প্রশাসনের দুই কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ খবর জানানো হয়।

ইন্ডিপেন্ডেনের রিপোর্টে বলা হয়, ১৮০৫ সালে তিউনিশিয়ার রাষ্ট্রদূত সিদি সোলিমান মেলিমেলি’র সম্মানে হোয়াইট হাউসে প্রথম ইফতার ডিনার আয়োজন করেছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট থমাস জেফারসন।

আর নিয়মিত প্রতিবছর ইফতার ডিনার আয়োজন চালু করেন সাবেক ফার্স্ট লেডি হিলারি ক্লিনটন। ১৯৯৬ সালের ওই ইফতার ডিনারে যোগ দিয়েছিলন ১৫০ জন। হিলারি তার মেয়ে চেলসির কাছ থেকে মুসলিম সম্প্রদায়ের রোজার রীতি জানার পর এ উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

এরপর প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ ও প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তাদের দুই মেয়াদের প্রতি বছর তা আয়োজন করে গেছেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close