আরববিশ্ব জুড়ে

ঈদের আনন্দ উপেক্ষা করে সৌদির কাছে দুইটি দ্বীপ বেঁচে দেবার ক্ষোভে উত্তাল মিশর

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: বাদশাহ সালমানের গত বছরের মিশর সফরের সময় লোহিত সাগরের এ দ্বীপ দুটি সৌদি আরবকে দেয়ার ক্রমশ উত্তাল হয়ে ওঠছে মিশর।

বিতর্কিত একটি চুক্তির পর সানাফির এবং টিরান নামের দুটি দ্বীপ সৌদি আরবকে দেয়ার এমন সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যান করে এই বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে মিশরের হাজার হাজার অধিবাসী।

গত সপ্তাহে মিশরের সংসদ ঐ চুক্তি অনুমোদন করে। এখন সেটি অনুমোদন করেছেন মিশরের সাবেক সেনাপ্রধান এবং প্রেসিডেন্ট আব্দুল ফাত্তাহ আল সিসি। কিন্তু এই চুক্তি নিয়ে মিশরে বিক্ষোভ জোরদার হচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট সিসি সেই চুক্তি অনুমোদনের পর প্রতিবাদকারীরা বলছেন, তিনি সৌদি সাহায্যের লোভে জায়গা ‘বেচে’ দিচ্ছেন। সেই সাথে শুরু হয়েছে আইনি লড়াই।

মিশরের একটি আদালত সৌদি আরবের কাছে দ্বীপ হস্তান্তরের চুক্তি বাতিল ঘোষণা করে রায় দিয়েছে। তবে অন্য আরেকটি আদালত চুক্তিকে বৈধ বলে রায় দেয়।

চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখন মিশরের সাংবিধানিক আদালতের কাছে। তারা এখনো কোনো রায় দেয়নি।

প্রেসিডেন্ট সিসি বলছেন দ্বীপ দুটোর প্রকৃত মালিক সৌদি আরব। ১৯৫০ এ সৌদিরা তাদের প্রতিরক্ষায় মিশরকে ঐ দুই দ্বীপে সৈন্য মোতায়েনের অনুমতি দিয়েছিলো। এখন শুধু সৌদি আরবের দ্বীপ তিনি ফিরিয়ে দিচ্ছেন।

তবে বিরোধীরা বলছেন, যেহেতু ২০১৩ সালে মোহাম্মদ মুরসির সরকারকে সেনা অভ্যুত্থানে উৎখাতের পর থেকে সৌদি আরব জেনারেল সিসিকে সমর্থন করে আসছে, সে কারণে সৌদিদের খুশি করতে সংবিধান লঙ্ঘন করছেন প্রেসিডেন্ট।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close