ভারত জুড়ে

কেঁদে উঠল মাটিচাপা দেওয়া শিশু

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: মাটিচাপা দিয়ে রাখা সদ্যোজাত এক শিশুর কান্না শুনে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে। ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্য থেকে উদ্ধার হওয়া ওই শিশুটি এখন পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গত সোমবার বিকেলে রাজ্যের বারওয়ানি জেলার ঘুস গ্রাম থেকে স্থানীয়রা ওই শিশুকে উদ্ধার করেন।

বারওয়ানি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার টি এস বাঘেল স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, সোমবার ঘুস গ্রামে স্থানীয় একটি কবরস্থানের পাশে খেলছিল কয়েকজন শিশু। এ সময় তারা পাশের কবরস্থানের মাটির নিচ থেকে শিশুর কান্নার আওয়াজ পায়। এর পর তারা ভয় পেয়ে তাড়াতাড়ি গ্রামে অন্যদের জানায়। খবর পেয়ে গ্রামবাসী সেখানে হাজির হয়।

টিএস বাঘেল আরো জানান, স্থানীয় বাসিন্দা শের সিংহ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মাটিচাপা দেওয়া সদ্যোজাত শিশুর কান্না শুনতে পান। শের সিংহ ও তাঁর স্ত্রী সুনিতা সিংহ দুজনে জীবন্ত ছেলেশিশুকে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে শের সিংহ জানান, শিশুকে মাটিচাপা দেওয়া হয়েছিল, তবে মুখের অংশটি বাইরে ছিল। এ কারণে নিশ্বাস নিতে কোনো সমস্যা হয়নি। পরে তিনি স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দেন। পুলিশ এসে শিশুকে বারওয়ানি জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে।

বারওয়ানি জেলা হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ রূপসিংহ ভাড়ালে জানান, শিশুটির বয়স ১০ দিনের মতো হবে। শিশুটির শরীরে পোকামাকড়ের কামড়ের চিহ্ন রয়েছে। তা ছাড়া সে ঠান্ডা-জ্বরে আক্রান্ত। মনে করা হচ্ছে, শিশুটি উদ্ধারের অল্প কিছুক্ষণ আগে মাটির নিচে রাখা হয়। তবে শিশুটি এখন আশঙ্কামুক্ত।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার টি এস বাঘেল জানান, শিশুটির চিকিৎসার খরচ বহন করেছন উদ্ধার করা শের সিংহ ও তাঁর স্ত্রী। তাঁরা ওই শিশুকে দত্তক নিতে আগ্রহ দেখিয়েছেন। তবে শিশুটি বারওয়ানি জেলা হাসপাতালে রেখে তার মা-বাবার খোঁজ করা হচ্ছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close