Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

হিলারি ইস্যুতে ট্রাম্পের ছেলে ও জামাতার বৈঠক হয়েছিল রাশিয়ান আইনজীবীর সাথে

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে রাশিয়ার আইনজীবী নাতালিয়া ভেসেলনিতস্কায়ার সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ছেলে ডনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র। তিনি এ কথা স্বীকার করেছেন।

ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ক্ষতি করার মতো তথ্য আছে এমন প্রতিশ্রুতির পর তাদের মধ্যে ওই বৈঠক হয় ২০১৬ সালের ৯ই জুন।

তবে ওই বৈঠকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের বিষয় আলোচনা হয় নি বলে দাবি করেছেন ডনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র। এতে উপস্থিত ছিলেন ট্রাম্পের জামাই জারেড কুশনার ও তখনকার প্রচারণা বিষয়ক প্রধান পল জে মানাফোর্ট। এ খবর প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী পত্রিকা দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। ট্রাম্প জুনিয়র এমন বৈঠক করলেও বলেছেন, এতে হিলারি ক্লিনটন সম্পর্কে অর্থপূর্ণ কোনো তথ্য বিনিময় হয় নি।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়া হস্তক্ষেপ করেছিল বলে জোর অভিযোগ আছে। অভিযোগ আছে, এতে জড়িত নির্বাচনকালীন ট্রাম্প টিমের প্রথম সারির অনেকে। এর মধ্যে তার জামাই জারেড কুশনারের নামও আছে। এসব নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা তদন্ত করছেন। তদন্তে নেমেছে এফবিআই এবং কংগ্রেস। দু’পক্ষই আলাদাভাবে ট্রাম্প টিমের ক্রেমলিন কানেকশনের তদন্তে রয়েছে। এখন পর্যন্ত যেসব তথ্য মিলছে তাতে যথাযথ প্রমাণ হাজির করা হয় নি।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, রাশিয়ান আইনজীবী মিসেস ভেসেলনিতস্কায়ার সঙ্গে নিউ ইয়র্কে ট্রাম্প টাওয়ারে জারেড কুশনারের বৈঠক হয় ডনাল্ড ট্রাম্প রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন নিশ্চিত করার ঠিক দু’সপ্তাহ পরে।

ধারণা করা হয়, এটাই প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ মহলের কোনো সদস্যের সঙ্গে রাশিয়ান কোনো নাগরিকের নিশ্চিত প্রথম প্রাইভেট বৈঠক। এ বিষয়টি নিউ ইয়র্ক টাইমস প্রথম রিপোর্ট করে শনিবার। তখন ট্রাম্প জুনিয়র ও মিসেস ভেসেলনিতস্কায়া দু’জনেই নিশ্চিত করেন ওই বৈঠক সম্পর্কে। তবে তারা দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে তাদের মধ্যে কোনো আলোচনা হয় নি।

এরপর রোববার নিউ ইয়র্ক টাইমস বলেছে, ট্রাম্প জুনিয়র ওই বৈঠকের বিষয়ে একমত হয়েছেন। তাতে কিছু তথ্য বিনিময় করা হয়, যা হিলারি ক্লিনটনের ক্ষতি করতে পারে। এক্ষেত্রে সূত্র হিসেবে নিউ ইয়র্ক টাইমস হোয়াইট হাউজের তিনজন ও এ বিষয়ে জানেন এমন দু’জনের কথা বলেছে। রোববার ট্রাম্প জুনিয়র এক বিবৃতিতে বলেছেন, পরিচিত একজন তাকে অজ্ঞাত একজনের সঙ্গে সাক্ষাত করতে বলেন।

তার ভাষায়, আমাকে বলা হয় তার সঙ্গে সাক্ষাত হলে নির্বাচনী প্রচারণায় এমন কিছু তথ্য পাওয়া যাবে তা প্রচারণায় সহায়ক হবে। সাক্ষাতের আগে আমাকে তার নাম বলা হয় নি। তাই আমি ওই ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠকে যোগ দিতে জারেড কুশনার ও পল ম্যানাফোর্টকে অনুরোধ করি। তবে তাদেরকে আগেভাগে কিছুই জানাই নি।

বৈঠকে কুশল বিনিময়ের পর ওই নারী আমাদেরকে বলেন যে, তার কাছে এমন কিছু মানুষের সম্পর্কে তথ্য আছে, যারা রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত এবং তারা ডেমোক্রেটিক ন্যাশনাল কমিটিকে অর্থ দিচ্ছে, হিলারি ক্লিনটনকে সমর্থন করছে।

তার এমন বক্তব্য ছিল অস্পষ্ট, সংশয় সৃষ্টিকারী। এমনকি এটা কোনো সেন্স মেক করে না। এ বিষয়ে কোনো সুনির্দিষ্ট তথ্য বা বিস্তারিত জানানো হয় নি বা প্রস্তাবও করা হয় নি। এতে তখনি আমরা বুঝে যাই যে, আসলে তার কাছে কোনো অর্থপূর্ণ তথ্য নেই।

ওদিকে যুক্তরাষ্ট্রে রাশিয়ার শিশুদের দত্তক নেয়ার কর্মসূচি স্থগিত রয়েছে। এ বিষয়ে এরপর ট্রাম্প জুনিয়র ও রাশিয়ার ওই আইনজীবীর মধ্যে আলোচনা হয়। তবে আলোচনায় উল্লেখ করার মতো বা নির্ভর করার মতো কিছু বেরিয়ে আসে নি।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close