গ্যালারী থেকে

এসিড হামলার ভয়ে স্ত্রী-সন্তানসহ দেশে ফিরে গেছেন তামিম ইকবাল

শীর্ষবিন্দু নিউজ: এসেক্সর হয়ে ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্টি ব্ল্যাাস্টে খেলতে ইংল্যান্ডে গিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। কিন্তু এক ম্যাচ খেলেই পরিবারসহ দেশে ফিরছেন দেশসেরা এ ওপেনার। হুট করে তার দেশে ফেরা নিয়ে ছিল নানা কৌতুহল।

অবশেষে জানা গেলো ভয়ঙ্কর এক খবর। আতঙ্কে দেশে ফিরেছেন তামিম ইকবাল। স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকাকে নিয়ে লন্ডনের একটি রেস্টুরেন্টে খাবার খেতে গিয়েছিলেন তামিম। পথিমধ্যে একদল উচ্ছৃঙ্খল যুবক তাদের পিছু নেয়। তামিম দম্পতির সঙ্গে ছিলেন তাদের পুত্র আরহাম ইকবাল খান। তিনজনকে ওই যুবকরা ধাওয়া করে। তামিমরা দৌড়ে পাশের এক জায়গায় নিরাপদ আশ্রয় নেয়। এ সময় ওই যুবকদের হাতে এসিডের বোতল ছিল।

মনে করা হচ্ছে, তামিমের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকার প্রতি ওই এসিড ছুড়তে তারা ধাওয়া করে। তামিমের স্ত্রী হিজাব পরিধান করেন। আর এ কারণে তিনি সন্ত্রাসীদের টার্গেট হতে পারেন। যদিও তামিম এ ব্যাপারে এখনো কোনো মন্তব্য করেননি।

তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পরিচালক উল্লেখিত ভয়ঙ্কর ঘটনার কথা বলেছেন, তামিম ও তার পরিবারকে ধাওয়া করেছিল কয়েকজন লোক। দৌড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যাওয়ায় তাদের কিছু হয়নি। এ ঘটনার পরই তামিম দেশে চলে আসার সিদ্ধান্ত নেন। আক্রমণকারীদের হাতে অ্যাসিড ছিল বলেও শুনেছেন তিনি।

বিসিবির দায়িত্বশীল এই কর্মকর্তার ধারণা, তামিমের স্ত্রী মাথায় হিজাব পরেন। হয়তো সে কারণেই তাদের টার্গেট করা হয়েছে। এর আগে গতকাল বিকেলে কাউন্টি ক্লাব এসেক্স তাদের ওয়েবসাইটে দেয়া এক বিবৃতিতে জানায়, ব্যক্তিগত কারণে তামিম ক্লাব ছেড়ে যাচ্ছেন। বিবৃতিতে ইংলিশ কাউন্টির ক্লাবটি আরও লিখেছে, আমরা তার মঙ্গল কামনা করছি। এই সময়ে তামিমের ব্যক্তিগত জীবনের প্রতি সম্মান জানালে আমরা খুশি হব।

ইংল্যান্ডে সম্প্রতি মুসলিম নারীদের ওপর এসিড হামলার ঘটনা ঘটেছে। ২১ জুন দুইজন মুসলিম নারী এসিড হামলার শিকার হন।

ন্যাটওয়েস্ট ব্ল্যাস্টে খেলার জন্য তামিমের চলতি মাসের শেষ পর্যন্ত লন্ডনে থাকার কথা ছিল। সেখানে তিনি একটি বাড়ি ভাড়া নেন। কিন্তু সবকিছু ছেড়ে মঙ্গলবার সকালে দেশে ফিরে গেছেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close