ভারত জুড়ে

পাসপোর্ট পেতে বার্থ সার্টিফিকেট আর বাধ্যতামূলক নয়

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ভারতে পাসপোর্ট ইস্যু করার প্রক্রিয়া আরও সহজ করল কেন্দ্রীয় সরকার। পাসপোর্টের আবেদন করতে গেলে এখন থেকে আর জন্মের শংসাপত্র দেওয়া বাধ্যতামূলক নয়। সংসদে এ কথা জানিয়েছেন বিদেশমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী ভিকে সিং।

সাধারণ মানুষ যাতে আরও সহজে পাসপোর্ট পেতে পারেন, তার জন্যই এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন তিনি।

 ১৯৮০-র পাসপোর্ট আইন অনুযায়ী, ১৯৮৯-এর ২৬ জানুয়ারি বা তার পরে যাঁদের জন্ম, তাঁদের পাসপোর্টের আবেদন করতে হলে জন্মের প্রমাণপত্র হিসেবে বার্থ সার্টিফিকেট জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক। এই নিয়মটিই এবার শিথিল করল কেন্দ্রীয় সরকার।

বার্থ সার্টিফিকেটের বদলে আধার কার্ড বা প্যান কার্ডের কপি জমা দেওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে। এছাড়াও স্কুলের ফাইনাল ইয়ারের সার্টিফিকেট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ভোটার কার্ড এমন এলআইসি পলিসি বন্ডের কপিও জন্মের প্রমাণপত্র হিসেবে জমা দেওয়া যাবে।

সরকারি চাকুরিজীবীরা সার্ভিস রেকর্ড, পেনশন রেকর্ড জমা করতে পারেন। পাসপোর্টকে সবার কাছে আরও সহজে উপলব্ধ করে তুলতেই এই পদক্ষেপ বলে জানিয়েছেন ভিকে সিং। অনাথ আশ্রমের শিশুরা সেই অনাথ আশ্রমের সার্টিফিকেট জমা করতে পারবে। যাঁরা বিবাহিত, তাঁদের ম্যারেজ সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই।

এছাড়াও ৬০ বছরের বেশি ও ৮ বছরের কম বয়স হলে পাসপোর্ট ফি-তে ১০% ছাড় মিলবে। পাসপোর্টের আবেদনের জন্য দেওয়া সব নথি সেল্ফ-অ্যাটেস্টেড হলেই চলবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী। ২০১৬-র ডিসেম্বর থেকে এই সব নিয়ম কার্যকরী হয়েছে।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close