যুক্তরাজ্য জুড়ে

বৈচিত্রের জন্য প্রয়োজন একুশের চেতনা: বার্মিংহামস্থ বাংলাদেশ সহকারী হাই কমিশনার

বহু সংস্কৃতির সমাজে বৈচিত্র ধারন এবং ইনক্লুসিভ সমাজ গঠনের মাধ্যমে শান্তি ও প্রগতি অর্জনের ক্ষেত্রে একুশের চেতনা খুবই প্রাসঙ্গিক। একথা বললেন বার্মিংহামস্থ বাংলাদেশ বাংলাদেশ সহকারী হাই কমিশনার জনাব মোহাম্মদ জুলকার নায়েন।

তি সম্প্রতি নটিংহাম-এ অবস্থিত রাইজ পার্ক স্কুল কর্তৃক আয়োজিত রেইস এন্ড কালচার ডাইভারসিটি এওয়ারনেস কোর্স-এ অংশগ্রহনকারী ছাত্র-ছাত্রীদের গ্রাজুয়েশন প্রোগ্রাম-এ প্রধান অতিথি হিসেবে সনদপত্র বিতরণের পর উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক এবং অভিভাবক সমাবেশে ভাষা ও বৈচিত্রের জন্য বাংলাদেশের জনগনের সংগ্রামের কথা তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, বিভিন্ন ভাষাও সংস্কৃতির প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শনের মাধ্যমে বিশ্বে শান্তি ও শৃংখলা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। ভাষার জন্য বাংলাদেশের জনগণের আত্মত্যাগের বিষয়টি ১৯৯৯ সাল থেকেই বিশ্বের দরবারে সাংস্কৃতিক বৈচিত্র সংরক্ষন ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে অনুপেরণার উৎস হিসেবে কাজ করছে বলে তিনি সকলকে অবহিত করেন। ভাষা শিক্ষার প্রতি গুরুত্বারোপ করে পরবর্তী প্রজন্মকে নিজ নিজ ভাষা শিক্ষা দানের প্রয়োজনীয়তাও তিনি তাঁর বক্তব্যে তুলে ধরেন।

উল্লেখ্য যে, ছয় সপ্তাহব্যাপী এ কোর্সটি পরিচালনা করেন নটিংহামস্থ শিক্ষা পরামর্শক ও কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব জনাব সাব্বির হোসেন। এতে প্রায় ৬০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। এ কোর্সটি তিনি বিগত ১০ বছর যাবৎ পরিচালনা করছেন এবং গতবছর হতে বাংলাদেশের ভাষা আন্দোলনের বিষয়টি কোর্সে অন্তর্ভূক্ত করা হয়।

-প্রেরিত সংবাদ

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close