ভারত জুড়ে

অবশেষে সন্তানের জন্ম দিলো ধর্ষণের শিকার ১০ বছরের সেই শিশু

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ভারতে ধর্ষণের শিকার ১০ বছর বয়সের সেই শিশুটি এবার সন্তানের জন্ম দিলেন। বৃহস্পতিবার চন্দিগরের একটি হাসপাতালে তিনি সন্তান জন্ম দিয়েছেন।

দ্যজাত শিশু ও তার মায়ের অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল আছে। ভারতের চন্দিগরের এই শিশুর গর্ভপাত করা নিয়ে দেশটির সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞার পর ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছিল দেশ ও বিদেশের গণমাধ্যমে।

চন্দিগরের সরকারি একটি হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ এক চিকিৎসক বলেছেন, শিশুটি সি-সেকশনের মাধ্যমে সন্তান জন্ম দিয়েছে। তার অবস্থা স্থিতিশীল।

ধর্ষণের শিকার এই শিশুটির চিকিৎসায় গঠিত হাসপাতালের বিশেষ কমিটির চেয়ারম্যান ডা. দাসারি হারিশ বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে সি-সেকশনের মাধ্যমে ছোট্ট ওই শিশুটি সন্তানের জন্ম দিয়েছে। সদ্যজাত শিশুর ওজন ২ দশমিক ২ কেজি এবং তাকে নিও নাটাল আইসিইউ’তে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ধর্ষিত শিশুটিকে নিয়ে উদ্বেগ থাকলেও তার অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল রয়েছে এবং তাকে আলাদা কক্ষে রাখা হবে। সদ্যজাত শিশুটির ওজন সামান্য কম।

ভারতের উত্তরাঞ্চলের চান্দিগরের এই শিশু গর্ভবতী হয়ে পড়া ও তার গর্ভপাতের জন্য আদালতে আবেদন করা নিয়ে এর আগে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। সন্তান জন্মদান ঝুকিপূর্ণ হতে পারে উল্লেখ করে তার গর্ভপাতের আবেদন করা হলেও সেই আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়। ভারতীয় আইন অনুযায়ী, ২০ সপ্তাহের বেশি গর্ভবতী হলে গর্ভপাতের সুযোগ নেই।

গত ২৮ জুলাই ৩২ সপ্তাহের গর্ভবতী এই শিশুর গর্ভপাতের অনুমতি চেয়ে করা এক পিটিশন প্রত্যাখ্যান করেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।সেই সময় বলা হয়, সন্তান জন্মদানের কাছাকাছি রয়েছে সে।

চিকিৎসকদের একটি প্যানেল আদালতকে পরামর্শ দিয়ে বলেছে যে, এই সময়ে গর্ভপাত করা হলে শিশুটির জীবন প্রচণ্ড হুমকির মুখে পড়বে। আদালতের ওই নির্দেশ হতাশ হয় শিশুটির পরিবার। তবে সব শঙ্কা উড়িয়ে শিশুটি বৃহস্পতিবার এক সন্তানের জন্ম দিলেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close