পাক সীমানা জুড়ে

মায়ের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় মরিয়ম নওয়াজ

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: মা কুলসুম নওয়াজের পক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণায় নেমে পড়েছেন কন্যা মরিয়ম নওয়াজ। কুলসুম নওয়াজ পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের স্ত্রী ও সাবেক ফার্স্টলেডি। গত ২৮ শে জুলাই নওয়াজ শরীফকে সুপ্রিম কোর্ট অযোগ্য ঘোষণার পর জাতীয় পরিষদের ১২০ নম্বর আসনটি শূন্য হয়ে যায়।

সেই আসনে আগামী ১৭ই সেপ্টেম্বর উপনির্বাচন। এতে ক্ষমতাসীন দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএলএন) প্রার্থী কুলসুম নওয়াজ। কিন্তু তার ক্যান্সার ধরা পড়ায় বর্তমানে লন্ডনে অবস্থান করে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তা সত্ত্বেও তিনি বলেছেন, ভার্চুয়ালি তিনি লাহোরের ওই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে যাবেন এবং বিজয় অর্জন করবেন। তবে নিজে নির্বাচনী প্রচারণার মাঠে থাকতে পারছেন না।

তাই শনিবার তার পক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে নেমে পড়েছেন মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। শনিবার মরিয়ম নওয়াজ পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ও নিজের চাচা শাহবাজ শরীফের মডেল টাউন সেক্রেটারিয়েটে দলীয় নেতাকর্মী ও ১২০ নম্বর আসনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা সভা করেছেন।

রাওয়ালপিন্ডির বাসভবন থেকে বেরিয়ে গাড়িবহর নিয়ে তিনি সেখানে পৌঁছেন। প্রচারণা চালান। এ সময় সেক্রেটারিয়েটে উপস্থিত ছিলেন না মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ। এ সেক্রেটারিয়েটটি গত চার বছর ব্যবহার করেছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরীফের ছেলে হামজা শরীফ। এখান থেকে নির্বাচনী ও অন্যান্য কাজকর্ম পরিচালনা করা হয়েছে।

তবে এবার তিনি কুলসুম নওয়াজের নির্বাচনী প্রচারণা থেকে নিজেকে বিরত রেখেছেন, না হয় দূরত্ব বজায় রাখছেন। মিডিয়ায় বলা হচ্ছে, শরীফ পরিবারের মধ্যে বিরোধ দেখা দিয়েছে। তারই বহিঃপ্রকাশ এটা। শনিবার নির্বাচনী প্রচারণা নিয়ে বৈঠকে মরিয়ম নওয়াজকে স্বাগত জানিয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের বিশ্বস্ত সহযোগী সিনেটর পারভেজ রশিদ। মরিয়ম যখন স্থানীয় নেতা ও কর্মীদের নির্বাচনী প্রচারণা জোরালোভাবে চালানোর আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন তখন তাকে সহযোগিতা করেন রশিদ। এ সময় মরিয়ম নওয়াজের পক্ষে স্লোগান ওঠে।

এর মধ্যে মরিয়ম সবাইকে মতবিরোধ দূর করার আহ্বান জানিয়ে হাতে হাত রেখে তার মা কুলসুম নওয়াজকে বিজয়ী করতে কাজ করার অনুরোধ করেন। নির্বাচনী প্রচারণায় সাবেক এমপি হাফিজ নুমানকে আহ্বায়ক হিসেবে নিয়োগ দেন মরিয়ম। উল্লেখ্য, এই উপনির্বাচনে যদি কুলসুম নওয়াজ বিজয়ী হতে পারেন তাহলে তাকে বানানো হতে পারে পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। বর্তমানের অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসীর স্থলাভিষিক্ত হবেন পরের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close