Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

যুবতীর অদ্ভুত কাণ্ড

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় সামাজিক মিডিয়ায় রীতিমতো ঝড় তুলে দিয়েছেন এক অন্তঃসত্ত্বা যুবতী। তিনি নিজেকে পরিচয় দেন সাইপ্যানটিং নামে।

তবে তার আসল নাম জানা যায় নি। সাইপ্যানটিং নামে তিনি গত বুধবার একটি পোস্ট দেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে। তাতে নিজের একটি সেলফিও ব্যবহার করেন। তা দেখে মনে হতে পারে তিনি অন্তঃসত্ত্বা।

তবে এ জন্য তিনি আলোচনায় আসেন নি। তিনি পোস্টে বলেছেন, যদি তার এই পোস্টের বিপরীতে তিনি ৪০০০ রি-টুইট বা জবাব না পান তাহলে গর্ভস্থ শিশুকে গর্ভপাতের মাধ্যমে তিনি ফেলে দেবেন। তার এমন অদ্ভুত হুমকিতে থ হয়ে গেছে বিবেকবান মানুষ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম মানুষকে কোথায় নিয়ে যাচ্ছে! এ

কটি পোস্টের শুধু জবাব পাওয়ার জন্য একজন মানুষ তিনি হোন নারী বা পুরুষ, নিজের সন্তানকে হত্যার হুমকি দিতে পারেন! এটাকে কি সুচিন্তিত মানসিকতা বলা যায়! এ নিয়ে তুমুল আলোচনা, সমালোচনা চলছে। এর মধ্যে তার সমালোচনাই বেশি।

সোমবার পর্যন্ত ওই যুবতীর টুইটের জবাবে টুইট এসেছে ১০ হাজারেরও বেশি। সাইপ্যানটিং-এর এমন উদ্ভট পোস্টের জবাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে। আরেকজন টুইটার ব্যবহারকারী এনিমেশন ব্যবহার করে ওই যুবতীর পিতা বলে দাবি করে নিজেকে।

কয়েক হাজার মানুষ জবাবে বলেছেন, সাইপ্যানটিং শুধুই মনোযোগ আকর্ষণ, অনুসারীর সংখ্যা বাড়াতে এমনটা করেছেন। এ সময় তারা সাইপ্যানটিং অন্তঃসত্ত্বা কিনা তা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেন। শেষ পর্যন্ত তিনি জানিয়ে দেন, এতটা সিরিয়াস অর্থে তিনি ওই পোস্ট দেন নি। ‘আমি কোনো গুজব ছড়াতে চাই না’।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close