লন্ডন থেকে

বাকিংহাম প্যালেসে হামলার অভিযোগে গ্রেফতারকৃত যুবক বাংলাদেশী

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: ব্রিটিশ রাজপরিবারের বাসস্থল বাকিংহাম প্যালেসে হামলার ঘটনায় সম্প্রতি আটক হওয়া ব্যক্তি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ বলে জানা গেছে। তার নাম মহিহুস সুন্নাত চৌধুরী।

২৫ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাকিংহাম প্যালেসের বাইরে ছুড়ি দিয়ে হামলা চালাতে গিয়ে আটক হয়েছিলেন মহিহুস। ৩১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার তাকে লন্ডনের ওয়েস্টমিনিস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নেওয়া হয়। তার বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যের সন্ত্রাসবিরোধী আইনে অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযোগে বলা হয়েছে, লন্ডনের বার্কশায়ারে ব্রিটিশ রাজদরবার উইন্ডসোর ক্যাসেলে হামলা করতে চেয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। তবে তার গাড়ির জিপিএস ডিভাইজ তাকে একই নামের এক মদের দোকানের পথে নিয়ে যায়। গাড়ি চালিয়ে সেখান থেকে তিনি রানি এলিজাবেথের (২)বাসস্থান বাকিংহাম প্যালেসের কাছে চলে যান। সেখানেই স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড অফিস তাকে আটক করে।

প্রসিকিউটর মার্ক ক্যারোল আদালতকে বলেন, ওই ব্যক্তিকে গাড়ি আটক করে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে তিনি ছুড়ি বের করেন এবং আল্লাহ আকবর বলে বারবার চিৎকার করতে থাকেন। ২৫ আগস্ট পুলিশি হেফাজতে তার রিম্যান্ড সম্পন্ন হয়। সেপ্টেম্বরের ২১ তারিখে তাকে লন্ডনের ওল্ড বেইলে আদালতে নেওয়া হবে। তার বিরুদ্ধে তিনজন পুলিশকে আহত করার অভিযোগও তোলা হয়েছে।

মহিহুস সুন্নাত চৌধুরী নামের ওই ব্যক্তি সেন্ট লোয়ারেন্স প্রাইমারি স্কুল এবং উক্সব্রিজ হাই স্কুলে পড়ালেখা করেছেন। ওই দুই প্রতিষ্ঠানে তাকে ভালো চোখেই দেখা হতো। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তার এক সহপাঠী জানান, সবার প্রিয় ছিল মহিহুস, সবার সঙ্গড়ে তার বন্ধুত্ব ছিল। তার মা-বাবা ও বোন রয়েছে। তারাও খুব ভালো মানুষ।

হামলার দিনে পুলিশ জানায়, অস্ত্রধারী ওই ব্যক্তিকে বাকিংহাম প্যালেসের কাছের রাস্তায় শুক্রবার ৮টা ৩৫ মিনিটের দিকে দেখা যায়। তখন পুলিশ তার গাড়িতে একটি বড় ছুরি দেখতে পায়। গ্রেফতার করতে গেলে দুই পুলিশ কর্মকর্তার ওপর চড়াও হন ওই ব্যক্তি। এতে তিন পুলিশ সদস্য সামান্য আহত হন।যুক্তরাজ্যের লন্ডনে ছুরিধারী এক ব্যক্তিকে আটক করার সময় আহত হয়েছেন দেশটির দুই পুলিশ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close