স্বদেশ জুড়ে

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে মিয়ানমারের ৪ গুপ্তচর আটক

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দুর্গম ফুলতলী ঢেঁকিবুনিয়া সীমান্ত এলাকায় মিয়ানমারের ৪ গুপ্তচরকে আটক করেছে বিজিবি সদস্যরা। আটক ৪জন রোহিঙ্গা গুপ্তচর বলে জানা গেছে।

বিজিবি সূত্রে জানায়, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনে নাইক্ষ্যংছড়ির চাকঢালা সীমান্তে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয়া প্রায় ৫০ হাজার রোহিঙ্গার সাথে মিশে যায় এ ৪জন গুপ্তচর। বিজিবি সদস্যদের সন্দেহ হলে প্রথমে তাদের নজরদারিতে রাখা হয়। পরে বুধবার সন্ধ্যায় তাদেরকে আটক করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

চার গুপ্তচর হল যথাক্রমে মিয়ানমারের মংডু শহরের ফকিরাবাজার আমতলীর বাসিন্দা আব্দুল শুক্কুরের পুত্র আনোয়ার হোসেন (৪০), মৃত নজির আহমদের পুত্র জাফর আলম (৪৫), নুরে আলমের পুত্র মো. আজমল হোসেন (৩৮) এবং ইউসুফ আলীর পুত্র মো. কালু মিয়া (৫৫)। বিজিবি ও পুলিশ সুত্র জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের ফুলতলী ঢেঁকুবুনিয়া ৪৮নং পিলারের এলাকা থেকে এই ৪জনকে সন্দেহজনক ঘুরাঘুরি করার সময় বিজিবি সদস্যরা আটক করে।

তাদেরকে জেলা সদরের নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে হস্তানান্তর করা হয়েছে এবং ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পুলিশ জানায়, নিরাপত্তা বাহিনীর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক এই ৪ গুপ্তচর বহু গুরুত্বপুর্ণ তথ্য দিয়েছে। তারা মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে রাখাইন রাজ্যে সেনাদের সাথে রোহিঙ্গা হত্যা, নির্যাতন, ধর্ষণ ও বসতবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়ার কাজে অংশ নিয়েছিল বলে জানিয়েছে।

অন্যদিকে, বান্দরবান সেনা রিজিয়ন জিএসটু মেজর আবু সাইদ মো মেহদেী হাসান জানান, জেলার সার্বিক নিরাপত্তার প্রশ্নে আটককৃত এই ৪ জনের ভুমিকা সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে। তবে আটকরা ইতিপূর্বে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর পক্ষে কাজ করেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি অশান্ত হয়ে উঠায় তারা অন্যান্যদের মত বাংলাদেশ সীমান্তে আশ্রয় নিয়েছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close