প্রযুক্তি আকাশ

আপনার অজান্তেই ভয়ানক কোন অপরাধীর তালিকায় যুক্ত হতে পারে আপনারও নাম

প্রযুক্তি আকাশ ডেস্ক: প্রযুক্তির আশির্বাদে পৃথিবীতে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহ সহজ হয়েছে অনেককিছুই। কিন্তু এই আশির্বাদের কিছু অভিশাপও আছে । দিনকে দিন বাড়ছে তথ্যপ্রযুক্তি সেই সাথে পাল্লা দিয়ে এর অপব্যাবহার করছে অসাধু অনেক গোষ্ঠী।

শিরোনামে বলেছিলাম, আপনি জানেন কী ? সামান্য ভুলে একজন সাধারন একজন মোবাইল ব্যাবহারকারী হয়েও ভয়ানক কোন জংগী অথবা অপরাধীর খাতায় উঠতে পারে আপনার নাম!

হ্যা, এটাই সত্যি, আপনার অজান্তেই ঘটে যেতে পারে এমন ভয়াবহ কোন ঘটনা। সবার আগে প্রয়োজন প্রযুক্তি ব্যবহারে সতর্কতা। আমাদের দেশে এমন সতর্কতা অনেক কমহারে দেখা যায়। তাই ভবিষ্যৎ অশনিসংকেত নিয়ে সময়ের কণ্ঠস্বরের পাঠকদের জন্য আজকের এই পরামর্শ। আপনি নিজে জানুন অন্যকেও জানান বাড়তি সতর্কতার লক্ষে।

মোবাইলে অচেনা অনেকেই ফোন করে বিরক্ত করে থাকে। বিরক্তের পাশাপাশি অনেক সময় অচেনা এসব কলের হুমকিতে বেশ টেনশনেও থাকতে হয়। অপরিচিত নম্বর থেকে কল আসে না এমন মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা নেই বললেই চলে। সম্প্রতি বাংলাদেশের মোবাইল ফোনের সিম ক্লোন করা হচ্ছে। আর এ নিয়ে চিন্তিত অনেকেই । আশংকার কারন হলো জঙ্গিসহ সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র ক্লোন করা এই সিম ব্যবহার করতে পারে।

এতদিন আমরা জানতাম এসব নাম্বার থেকে নিছক বিরক্তির জন্যই কল করা হয়ে থাকে হয়তো। কিন্তু প্রযুক্তিবিদেরা বলছেন, অপরিচিত নম্বর থেকে আসা বিশেষ কিছু কল আপনার জন্য দারুন বিপদ ডেকে আনতে পারে। একবার ভুল করে রিসিভ করলে কিংবা কল ব্যাক করলেই চরম বিপদে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বাংলাদেশে ছয়টি মোবাইল ফোন অপারেটরের গ্রাহক সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। কিন্তু সচেতনার অভাবে ঝুঁকিও বাড়ছে। টেলিযোগাযোগ বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, পরিমাণে কম হলেও বাংলাদেশে মোবাইল ফোনের সিম ক্লোন করা হচ্ছে এখন । আর সচেতন না হলে তা আরো বেড়ে যেতে পারে।

কিভাবে বুঝবেন পনি শিকার হচ্ছেন ক্লোনিং এর?

প্রচারণার অভাবে গ্রাহকরা ক্লোন করা সিম সম্পর্কে তেমন সচেতন নন। মোবাইল ফোনের ব্যালেন্স হঠাৎ করে অস্বাভাবিকভাবে কমে যাওয়া অথবা একই ফোন নম্বর দু’জন ব্যবহার করলে বুঝতে হবে সিম ক্লোন হয়েছে।

আর এখন মূল সিম ছাড়াই কম্পিউটারের মাধ্যমে মিসড কল দিয়ে সিম ক্লোন করা সম্ভব। কোনো গ্রাহক যদি অপরিচিত ফোন থেকে পাওয়া মিসড কলে কল ব্যাক করেন তাহলে তার সিম ক্লোন হয়ে যেতে পারে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের উপ-কমিশনার মো. মনিরুল ইসলাম জানান, তারা এই ক্লোন্ড সিম সম্পর্কে সচেতন আছেন। ক্লোন্ড সিম ব্যবহার করে নানা অপরাধমূলক কাজ করা সম্ভব।

তিনি জানান, এ ব্যাপারে গ্রাহকদের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তুলতে বিটিআরসি এবং মোবাইল ফোন অপারেটরদের সঙ্গে কথা বলেছেন।

তিনি আরও জানান, ফোনের সিমের সঙ্গে ফোন সেটটিও ক্লোন হতে পারে। আর সেট ক্লোন হলে মেমোরিতে থাকা সব তথ্য চলে যেতে পারে অন্যের হাতে। তাই অপরিচিত মোবাইল ফোন থেকে আসা মিসড কলের জবাব দেয়ায় বিরত থাকার জন্য গ্রাহকদের প্রতি আহবান জানিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা বিভাগ।

১. সিম ক্লোন কি?

একটি সিম যেটি আপনি ব্যবহার করছেন সেই সিম টি যদি অন্য কেউ ব্যবহার করে কিংবা এক নাম্বার যদি দেখেন এক সাথে দুইজন ব্যবহার করে কিংবা হঠাৎ করে যদি দেখেন আপনার সেল ফোনের কানেকশন নাম্বার থেকে ব্যালান্স কোন কারন ছাড়া কমে যাচ্ছে তবে আপনি সিম ক্লোনের শিকার।

২. কিভাবে শিকার হতে পারেন সিম ক্লোনের?

আপনি যদি অপরিচিত কোন নাম্বার থেকে মিসড কল পান এবং সেটাতে যদি কল ব্যাক করেন তবে আপনি সিম ক্লোনিং এর শিকারে পরিনত হতে পারেন। দুষ্কৃতকারীরা বিশেষ একটি সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনার নাম্বার টি ক্লোনিং করে। অর্থাৎ আপনি যখন মিসড কল নাম্বারে কল ব্যাক করবেন তখন একটি সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনার নাম্বার টি ক্লোন হতে পারে। সিম ক্লোনিং হলে আপনার সিমে রাখা ডাটা ক্লোন নাম্বারে চলে যাবে। এবং আপনার প্রাইভেসি ক্ষুণ্ণ হবে।

৩. যে সমস্যায় আপনি পড়তে পারেন সিম ক্লোনিং হয়ে গেলে?

সাধারনত জঙ্গি কিংবা দুষ্কৃতিকারীরা আপনার নাম্বার টি ব্যবহার করে আপনার জীবন বিপন্ন করতে পারে। অর্থাৎ ওই নাম্বার দিয়ে কেউ কাউকে মৃত্যুর হুমকি, চাঁদাবাজি কিংবা জঙ্গি কানেকশন করলে আপাত দায়ভার আপনার উপর বর্তাবে। কাজেই আপনি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধৃত হবেন। পরবর্তীতে আরও নানাবিধ সমস্যায় পড়তে পারেন।

সতর্ক হবেন যেভাবে:

* অপরিচিত নাম্বার থেকে মিসড কল এলে আপনি কল ব্যাক করার পূর্বে ভালো করে চিহ্নিত করবার চেষ্টা করুন যে এটি কার নাম্বার। অথবা কল ব্যাক করা বন্ধ করুন।

* মনে রাখবেন সিম ক্লোনিং হতে হলে মিসড কল আসবে। ডাইরেক্ট রিং হলে সেটি রিসিভ করলে আপনি সিম ক্লোনিং এর শিকার হবেন না। মিসড কল এলেই সতর্ক হন।

* যদি দেখেন আপনার সেল ফোনের ব্যালান্স অকারণে কমে যাচ্ছে সাথে সাথে কল সেন্টারে ফোন করে জানান।

* আপনার সেল ফোন টি এখনি বন্ধ করে অন্য একটি নাম্বার থেকে আপনার নাম্বারে ফোন দিন। দেখুন রিং হয় কিনা। রিং হলে আপনি সিম ক্লোনিং এর শিকার।

সম্প্রতি আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারতে এক লাখ সিম ও রিম কার্ড ক্লোনিং হয়েছে। সেখানকার গোয়েন্দা বাহিনী সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে ওই ক্লোনিং সিম বা রিমের মাধ্যমে অনেক অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। বাংলাদেশে এখনও সিম ক্লোনিং হয়েছে বলে ৬ টি মোবাইল অপারেটরের হাতে এমন কোন তথ্য নেই। তবে বাংলাদেশের গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে যে কোন সময়ে এমন অনাকাংখিত ঘটনা ঘটতে পারে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক হ্যাকিং করতে পারে সেরকম কিছু বিপদসঙ্কুল নম্বর।

মোবাইল ফোন গ্রাহকদের অনেকেই +375602605281, +37127913091 +37178565072 +56322553736 +37052529259 +255901130460 এই রকম কিছু নম্বর থেকে মিস্ কল আসার শিকার হয়েছেন। অথবা এমন কিছু নম্বর যার শুরুতে +375 +371 +381 এই code গুলো ছিল।

এই রকমের নম্বর থেকে একটা মিসড কল হলে অথবা কিছুক্ষণ রিং বেজে বন্ধ হয়ে গেলে, আপনি যদি কল ব্যাক করেন তবে বিপদ। আপনার ব্যালেন্স থেকে 15-30$ কেটে নেওয়া হবে, আর তিন সেকেন্ডের মধ্যে আপনার কনট্যাক্ট লিস্টের সম্পূর্ণ কপি তাদের কাছে পৌঁছে যাবে। আপনার ফোনে যদি আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ডিটেইলস্ অথবা ক্রেডিট কার্ড ও ডেবিট কার্ডের তথ্য সেভ করা থাকে তবে সেগুলোও তারা কপি করতে সক্ষম হবে।

এবার জেনে নেওয়া যাক এসব ফোন কোন কোন জায়গা থেকে করা হয় ও কোন জঙ্গিগোষ্ঠী করে থাকে। যেমন +375 কোডের ফোন বেলারুশ থেকে করা হয়, +93 কোডের ফোন করা হয় আফগানিস্তান থেকে, +371 কোডের ফোন লাটভিয়া থেকে, +381 কোডের ফোন সার্বিয়া থেকে, +563 কোডের ফোন চিলি থেকে, +370 কোডের ফোন লিথুনিয়া, +255 কোডের ফোন আসে তানজানিয়া থেকে। এই সকল ফোন সাধারণত: ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিরা করে থাকে। তাই সাবধান! ভুল করেও ফোন রিসিভ করবেন না কিংবা কল ব্যাক করবেন না।

এছাড়া আপনার ফোন থেকে কখনও #90 ও #09 প্রেস করবেন না। কোনো নম্বর থেকে ফোন করে আপনাকে প্রলোভনমূলক কোনো কথা বলে যদি #90 ও #09 চাপতে বলা হয়, দয়া করে তা কখনো্ই করবেন না। এতে আপনার ফোনের সিম কার্ড ক্লোনিং করে, আপনার নম্বরের আর একটি সিম কার্ড বানিয়ে নেবে তারা। তারপর আপনার নম্বর ব্যবহার করে জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো বিভিন্ন অসামাজিক কাজ করবে, যার বিন্দুমাত্রও আপনি টের পাবেন না।

ব্যবহার করতে পারেন এই এপসটি

তবে এবার আপনার ফোনের ডিসপ্লেতে ভেসে ওঠা যে কোনো অচেনা ফোন নম্বরের ব্যক্তির তথ্য সহজেই স্মার্টফোন থেকে জেনে নিতে পারবেন। এজন্য অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের জন্য রয়েছে বেশ কিছু অ্যাপস। এসব অ্যাপস ব্যবহার করে মাত্র কয়েক সেকেন্ডে বিশ্বের যে কোনো প্রান্তের প্রাইভেট কলারের তথ্য পাওয়া যাবে।

এনরোয়েড প্লে স্টোর থেকে True caller ডাউনলোড করুন

কল লোকেটর অ্যাপস হিসেবে সবচেয়ে জনপ্রিয় এই অ্যাপটি। এর সাহায্যে বিশ্বের যে কোনো দেশের কলারের নাম ও ঠিকানা জানা যাবে। ফোন ধরার আগেই কলার সম্পর্কীয় তথ্য জানিয়ে দেয় ট্রু কলার অ্যাপটি। কোনো ব্যক্তি আপনাকে বার বার বিরক্ত করলে সংশ্লিষ্ট নম্বরটিকে এই অ্যাপের সাহায্যে ব্লক করেও দেয়া যাবে। এই অ্যাপের সাহায্যে আউটগোয়িং কলও ব্লক করা যাবে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close