যুক্তরাজ্য জুড়ে

ব্রেক্সিটের পর খাদ্যদ্রব্যের দাম বেড়ে যাবে ব্রিটেনে

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: ব্রেক্সিটের পর ইইউর সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তি নিয়ে রাজনীতিকরা বলছেন, ব্রেক্সিটের পর ইইউর সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তি না থাকলে খাদ্য দ্রব্যর দাম বেড়ে যাবে। এতে বড় ধরনের ধ্বংসের মুখে পড়তে পারে ব্রিটেন।

এদিকে, বানিজ্যিক চুক্তি ছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ করলে ব্রিটেনে খাদ্যদ্রব্যের দাম প্রায় ২২ শতাংশ বাড়তে পারে বলে সতর্ক করেছে সুপার মার্কেট সেইন্সবারি।

২০১৯ সালের মার্চের ভেতরে ইইউ ছাড়তে হবে। কিন্তু ব্রেক্সিটের পর ইইউর সঙ্গে ইউকের বানিজ্যিক সম্পর্ক কেমন হবে তা এখনো কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারছে না।

তবে ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারী বলেছেন, এমন কোনো সম্ভাবনা নেই। ব্রেক্সিটের আগে অবশ্যই বিজনেস ডিল হবে ইইউর সঙ্গে। আর না হলে ইউকের ফার্মগুলোতে খাদ্য উৎপাদন বাড়ানো হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

অন্যদিকে লেবার পার্টি বলছে, কোনো ধরনের বাণিজ্যিক চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট মেনে নেওয়া হবে না। তারপর অন্য আলোচনা। সরকারের পক্ষ থেকে নো ডিলের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলেও কোনো ধরনের চুক্তি ছাড়া ইইউ ত্যাগের বিপক্ষে শক্তিশালি অবস্থানে যাচ্ছে লেবার।

শেডো চ্যান্সেলার জানিয়েছেন, সরকার ডিলের পুরো বিষয় খোলাসা না করলে তারা অন্যান্য পার্টির সহযোগিতা নিয়ে প্রয়োজনে ব্রেক্সিট ডিল আটকে দেবেন। তবুও দেশের অর্থনীতিকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে দিবেন না।

ব্রেক্সিট বানিজ্যিক চুক্তি না হলে শুধু খাদ্যদ্রব্য নয় স্থল এবং আকাশ পথেও বিপত্তি বাড়বে ইউকের। যদিও ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারী এসব আশঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে বেশ দৃঢ়তার সাথেই বলেছেন চুক্তি অবশ্যই একটা হবে।

এতে অবশ্য মিশ্র প্রতিক্রিয়া আছে লিভ এবং রিমেইন ক্যাম্পেইনারদের মধ্যে। লিভ ক্যাম্পেইনারদের দৃঢ় মতে একটু বেশি অর্থ ব্যয়ে খাবার কিনতে তাদের আপত্তি নেই। তবুও ইইউ থেকে বের হয়ে আসা উচিত। অন্যদিকে রিমেইন ক্যাম্পেইনারদের মতে এটা হবে দেশের অর্থনীতির জন্যে আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close