এশিয়া জুড়ে

টানা তৃতীয় বারের মতো বিজয়ী অ্যাবে: উ.কোরিয়াকে কঠোরভাবে মোকাবিলা করার হুশিয়ারী দিলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: আগাম নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর উত্তর কোরিয়াকে ‘কঠোরভাবে মোকাবিলা’ করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে। স্থানীয় সময় রবিবার এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

অ্যাবে বলেন, জাপানের সামনে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ থাকায় সেগুলোর ব্যাপারে কঠোর অবস্থান নেয়ার জন্য জনগণের পক্ষ থেকে তার শক্ত ম্যান্ডেট প্রয়োজন ছিল। সেই ম্যান্ডেট নেয়ার জন্যই তিনি নির্ধারিত সময়ের চেয়ে এক বছর আগে পার্লামেন্ট নির্বাচনের আয়োজন করেছেন।

অ্যাবে বলেন, জাপানের সামনে থাকা এসব চ্যালেঞ্জের একটি হচ্ছে উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে ক্রমবর্ধমান হুমকি। উত্তর কোরিয়া গত কয়েক মাসে জাপানের উত্তরাঞ্চলীয় হোক্কাইদো দ্বীপের উপর দিয়ে দুই দফা ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে। টোকিও এ ঘটনাকে দেশটির সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন উল্লেখ করে এর পুনরাবৃত্তির ব্যাপারে পিয়ংইয়ংকে সতর্ক করে দিয়েছে।

রবিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনের অনানুষ্ঠানিক ফলাফলে দেখা গেছে, প্রধানমন্ত্রী অ্যাবের রাজনৈতিক দল লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি সংসদে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে পেরেছে।

উগ্র জাতীয়তাবাদী নেতা শিনযো অ্যাবে তার দেশের সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করতে চান। কিন্তু ১৯৪৭ সালে মার্কিন দখলদারদের প্রণীত সংবিধানে সে ব্যবস্থা রাখা হয়নি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী ওই ‘শান্তিকামী’ সংবিধানের ৯ নম্বর অনুচ্ছেদে জাপানের সেনাবাহিনীকে অন্য দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার অনুমতি দেয়া হয়নি। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী অ্যাবে সংবিধানের এই ধারা পরিবর্তন করতে চান। রবিবারের নির্বাচনে তার দলের বিপুল বিজয় তাকে সেই সুযোগ এনে দেবে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

ছয় পক্ষীয় আলোচনায় ফিরবে না উত্তর কোরিয়া

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চলমান সমস্যার সমাধান হওয়ার আগ পর্যন্ত ছয়পক্ষীয় আলোচনা ফিরবে না বলে ঘোষণা করেছে উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর আমেরিকা বিষয়ক মহা পরিচালক চোয়ে সন-হুই রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় অনুষ্ঠিত পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক এক সম্মেলনে একথা ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, মার্কিন সরকারের উত্তর কোরিয়া বিদ্বেষী নীতির কারণে কোরিয় উপদ্বীপে বর্তমানে তীব্র উত্তেজনা চলছে। সন-হুই বলেন, ওয়াশিংটনের সঙ্গে নিজের মতবিরোধ মিটিয়ে ফেলার আগ পর্যন্ত ছয়পক্ষীয় আলোচনায় ফিরবে না পিয়ংইয়ং।

উত্তর কোরিয়ার এই শীর্ষস্থানীয় কূটনীতিক হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বিদ্বেষী নীতি পরিত্যাগ না করলে পিয়ংইয়ং তার পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি আরো শক্তিশালী করবে।

চীন, রাশিয়া, জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও দুই কোরিয়ার মধ্যে এক দশকে আগে যে শান্তি আলোচনা শুরু হয়েছিল সেটি ছয়পক্ষীয় আলোচনা নামে পরিচিত। তবে সে আলোচনায় কখনোই তেমন কোনো অগ্রগতি অর্জিত হয়নি। গত কয়েক বছর ধরে এই আলোচনা বন্ধ রয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে উত্তর কোরিয়া বেশ কয়েকটি পরমাণু অস্ত্র ও আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র বা আইসিবিএম’র পরীক্ষা চালিয়েছে। দেশটি বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের বিদ্বেষী ও শত্রুতামূলক আচরণের জবাবে এসব পরীক্ষা চালানো হয়েছে। উত্তর কোরিয়া বহুবার বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র দেশগুলো যতদিন পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে শত্রুতামূলক নীতি বজায় রাখবে ততদিন নিজের আগাম হামলার সক্ষমতা শক্তিশালী করে যাবে উত্তর কোরিয়া।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close