লন্ডন থেকে

টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল নির্বাচনে হোয়াইটচ্যাপেল ওয়ার্ডে প্রার্থী চুড়ান্ত করেছে পিপলস এ্যালায়েন্স

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: আসন্ন টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল নির্বাচনে হোয়াইচ্যাপেল ওয়ার্ডে কাউন্সিলার প্রার্থী মনোনয়ন করেছে মেয়র প্রার্থী কাউন্সিলার রাবিনা খানের নেতৃত্বাধীন পিপুলস এ্যালায়েন্স অফ টাওয়ার হ্যামলেটস।

২১ নভেম্বর মঙ্গলবার পূর্ব লন্ডনের মাদানী গার্লস স্কুলের সেমিনার হলে উক্ত ওয়ার্ডের বিপুল সংখ্যক নারী পুরুষের উপস্থিতিতে এক মতবিনিময় সভায় স্থানীয় অধিবাসীরা তাদের নাম প্রস্তাব করলে পিপুলস এ্যালায়েন্স অফ টাওয়ার হ্যামলেটস‘র প্রার্থী হিসেবে তাদের নাম ঘোষণা করা হয়। হোয়াইচ্যাপেল ওয়ার্ডে কাউন্সিলার প্রার্থী হচ্ছেন কাউন্সিলার আব্দুল আসাদ, কাউন্সিলার আমিনুর খান ও কাউন্সিলার সাফি আহমদ।

কাউন্সিলার আমিনুর খানের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন কমিউনিটি নেতা আব্দুল হামিদ, আলতাব আলী, বদরুল চৌধুরী, ব্যারিস্টার গৌছ উদ্দিন, কলা মিয়া, মাওলানা আশরাফুল ইসলাম, পীর আহমেদ কুতুব, সভাপতি সৈয়দ সামসিয়া সমিতি, আঙ্গুর মিয়াসহ অনেকে। সভায় স্থানীয় বাসিন্দারা আগামী মেয়র নির্বাচনে রাবিনা খানের পক্ষে কাজ করতে সকলের প্রতি আহবান জানান। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন পিপুলস এ্যালায়েন্স অফ টাওয়ার হ্যামলেটস’র চেয়ার কাউন্সিলার আবুল আসাদ।

সভায় বক্তারা বলেন, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের জনগনের প্রত্যাশা পূরনে পরিবর্তন প্রয়োজন। তারা বলেন, মেয়র প্রার্থী কাউন্সিলার রাবিনা খানই বারার উন্নয়নে জনগনের প্রত্যাশা পূরন করতে পারেন। সাথে সাথে বক্তারা রাবিনা খানকে সহযোগিতা করতে প্রতিটি ওয়ার্ডে পিপুলস এ্যালায়েন্স মনোনীত প্রার্থীদের কাউন্সিলার হিসেবে নির্বাচনের আহবান জানান।

এসময় মেয়র প্রার্থী কাউন্সিলার রাবিনা খান বলেন, টাওয়ার হ্যামলেটস বারার শিশুদের নিয়ে অপস্টেট রিপোর্টের জন্য বর্তমান মেয়রের তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, এই রিপোর্টে মাধ্যমে প্রমানিত হয়েছে বর্তমান মেয়রের অধিনে বারার শিশুরা নিরাপদ নয়। তিনি বাসিন্দাদের উন্নয়নে পরিবর্তনের পক্ষে ভোট দেওয়ার আহবান জানান।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close