Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

যুক্তরাষ্ট্রে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় রেল সেবা সংস্থা এমট্রাক-এর একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ওয়াশিংটন শহরের দক্ষিণ টাকোমা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। দুর্ঘটনার কবলে পড়া অন্তত একশো জনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানানো হয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা বিধ্বস্ত রেলের প্রতিটি বগি খুঁজে দেখেছে।

তাই, ঘটনাস্থলে মৃত্যুবরণকারীর সংখ্যা আর বাড়ার আশঙ্কা নেই। দুর্ঘটনার সময় ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়ে সাতটি গাড়িতে আঘাত হানে। এর মধ্যে দুটি মালবাহী গাড়ি ছিল। এ সময় ট্রেনটি রাস্তায় আছড়ে পড়ে। উল্লেখ্য, ট্রেনটি এমট্রাকের প্রথম স্বল্পদূরত্বের যাত্রীবাহী প্রকল্প। ৫০১ নামের ট্রেনটি স্থানীয় সময় সকাল ৬ টায় সিয়াটল থেকে পোর্টল্যান্ডের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। পরে দক্ষিণ টাকোমা এলাকায় লাইনচ্যুত হয়।

এমট্রাকের এক মুখপাত্র বলেছেন, স্থানীয় সময় সকাল ৭ টা ৩৩ মিনিটে ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়। ট্রেনে ৭৭ জন যাত্রী এবং ৭ জন কর্মকর্তা ছিলেন বলে উল্লেখ করেন ওই মুখপাত্র। দুর্ঘটনার একটি ছবি প্রকাশ করেছে ওয়াশিংটন স্টেটের টহল পুলিশ। ছবিতে ট্রেনের একটি বগিকে উল্টে থাকতে দেখা যায়। দুর্ঘটনার সময় জরুরি সেবা চেয়ে রেল কর্তৃপক্ষের ফোনকলের রেকর্ড প্রকাশ করা হয়েছে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে। সেখানে বলতে শোনা গেছে- ‘ইমারজেন্সি! আমরা লাইনচ্যুত হয়ে পড়েছি’।

দ্বিতীয় আরেক ফোনকলে বলতে শোনা যায়- ‘ট্রেনের কেবল পিছনের অংশটুকু এখনো লাইনে আছে। বাকিগুলো ভূমিতে আছড়ে পড়েছে। অবস্থা সঙ্কটজনক। ট্রেনের ইঞ্জিনিয়ার মাথায় আঘাত পেয়েছেন’। এ দুর্ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রা¤প একটি টুইট করেন।

অবকাঠামো উন্নয়নে নিজের প্রণীত পরিকল্পনার বাস্তবায়নের প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, ‘ওয়াশিংটনে এইমাত্র সংঘটিত ট্রেন দুর্ঘটনায় এটা আরো ¯পষ্ট হয়ে উঠলো যে, এখন আমাদের পরিকল্পিত একটি নতুন অবকাঠামো অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে কেন বেশি প্রয়োজন। এই পরিকল্পনাকে যথাসম্ভব দ্রুত অনুমোদন করে বাস্তবায়ন করা দরকার।

যেখানে সাত লাখ কোটি ডলার মধ্যপ্রাচ্যের পেছনে খরচ করা হচ্ছে, সেখানে আমাদের নিজেদের রাস্তাঘাট, সেতু, টানেল এবং রেলপথ দুর্দশাগ্রস্ত! খুব বেশিদিন এই অবস্থা থাকবে না’! পরে তিনি আক্রান্তদের প্রতি সমবেদনা জানান। ওয়াশিংটনের গভর্নর এই ঘটনায় দুটি কাউন্টিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close