Featuredযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

পানির কবলে যুক্তরাষ্ট্রের জেএফকে বিমানবন্দর

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ: একের পর এক দু:সংবাদ ঘটে চলেছে আমেরিকায়। দুর্ভাগ্য যেন পিছু ছাড়ছেই

কয়েকদিনের প্রচণ্ড ঠাণ্ডার পর বম্ব সাইক্লোনে লণ্ডভণ্ড হয় যুক্তরাষ্ট্র। এর রেশ কাটতে না কাটতেই ক্যালিফোর্নিয়ায় মাটিধসের ঘটনা ঘটেছে।

আর রোববার নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি (জেএফকে) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাইপ ফেটে গিয়ে টার্মিনালে পানি ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে আগে থেকেই বিমানবন্দরে আটকে থাকা যাত্রীরা পড়েছে নতুন সমস্যায়।

এদিকে পানিতে ভেসে যাওয়ার ঘটনায় সোমবার কমপক্ষে ১২০টি ফ্লাইট বাতিল হয়ে গেছে। আর দেরিতে ছেড়েছে ২৮০টি ফ্লাইট।

এদিকে বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, ওই পাইপটিতে আবহাওয়া থেকে সুরক্ষার কোনো ব্যবস্থা ছিল না।

বন্দর কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক রিক কটন বলেছেন, সপ্তাহান্তে যা ঘটেছে যা পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য। সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

নিউ ইয়র্ক ও নিউ জার্সির বন্দর কর্তৃপক্ষ জেএফকে বিমানবন্দরসহ নিউ ইয়র্ক সিটি এলাকার পরিবহন ব্যবস্থার দেখভাল করে।

বিমানবন্দরের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, রোববার ৪ নম্বর টার্মিনালে ওই বিপর্যয়ের ঘটনা ঘটে। টার্মিনালটি আন্তর্জাতিক অভ্যাগতদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ প্রবেশপথ।

সোমবারই কর্তৃপক্ষ টার্মিনালে পানির কিছু নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম হয়। এর আগেই কয়েকশ যাত্রীর স্যুটকেস পানিতে ভিজে গেছে।

৩২ বছর বয়সী রেজি পাপাসিন ফিলিপিন্স থেকে জেএফকে বিমানবন্দরে পৌঁছেছেন। তার গন্তব্য মিয়ামি। তিনি বলেন, আমি আমার লাগেজ খুঁজে পাবো বলে আশা করছি। পাপাসিন প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রে এসেছেন।

গেলো আগস্টেই বন্দর কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব নেন কটন। তিনি বলেন, বন্দর কর্তৃপক্ষ এ ঘটনার তদন্ত করছে। কটন বলেন, আগামী শীতে টার্মিনালের ব্যবস্থাপনা আরো কার্যকর করতে এ প্রক্রিয়ায় স্বাধীন তদন্তকারী ও বিশেষজ্ঞদের যুক্ত করা হবে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close