Featuredদুনিয়া জুড়ে

দক্ষিণ আফ্রিকাকে শ্বেতাঙ্গ রাজ্য হিসেবে চেয়েছিলেন মার্গারেট থ্যাচার

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ: প্রাক্তন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচার বিশ্বাস করতেন দক্ষিণ আফ্রিকার স্রেফ শ্বেতাঙ্গ রাজ্য হওয়া উচিৎ।

মেইল অন সানডেতে প্রকাশিত দিনলিপিতে ব্রিটিশ ডিপ্লোম্যাটিক সার্ভিসের প্রাক্তন প্রধান স্যার প্যাট্রিক রাইট এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্যাট্রিক লিখেছেন, থ্যাচার জার্মানদের ঘৃণা করতেন এবং ভিয়েতনাম থেকে নৌকায় আসা লোকদের সাগরে ঠেলে দিতে চেয়েছিলেন।

তিনি দাবি করেছেন, ১৯১০ সালের প্রাককালে দক্ষিণ আফ্রিকার যে অবস্থা ছিল সেই পরিস্থিতি প্রত্যাশা করতেন থ্যাচার।

দিনলিপিতে স্যার প্যাট্রিক লিখেছেন, আমন্ত্রণ পেয়ে তিনি থ্যাচারের সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজে যোগ দিয়েছিলেন। আমাদের সামনে আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেসের সভাপতি অলিভান টাম্বোকে নিয়ে লেখা একটি সংবাদের সমালোচনা দিয়ে তিনি আলোচনা শুরু করলেন।

তিনি বলেন, এটাই প্রমাণ করছে তার সঙ্গে আমাদের আলোচনা করা উচিৎ নয়। প্যাট্রিক জানান, ১৯১০ সালে প্রাককালে প্রতিবেশী কৃষ্ণাঙ্গ দেশগুলো থেকে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ছোট শেতাঙ্গ রাজ্য হিসেবে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার পরিস্থিতি ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে তার দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরেন থ্যাচার।

থ্যাচারের এই আকাঙ্খার ব্যাপারে স্যার প্যাট্রিক প্রশ্ন তুলে বলেছিলেন, এর মাধ্যমে জাতিবিদ্বেষ ছড়াতে পারে। এসময় থ্যাচার ধমক দিয়ে উঠে তাকে বললেন, ‘আমাদের কৌশলগত স্বার্থের ব্যাপারে কি আপনার কোনো চিন্তা নেই?’

স্যার প্যাট্রিক আরো দাবি করেছেন, ১৯৮৯ সালে ভিয়েতনাম যুদ্ধের পর ৭০ হাজার ভিয়েতনামি তাদের দেশ থেকে পালিয়ে হংকং ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার পাঁচটি দেশে চলে আসে।

ওই সময় সবচেয়ে বাজে পরিস্থিতিতে ছিলেন থ্যাচার। তিনি ওই ভিয়েতানামিদের ফেরত পাঠানোর এবং তাদেরকে সাগরের দিকে ঠেলে দেওয়ার পক্ষে ছিলেন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close