Featuredযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

ট্রাম্প-মেলানিয়া সম্পর্কে টান

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ: পর্নো তারকা স্টর্মি ডানিয়েলসের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের যৌন সম্পর্ক নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র তো বটেই, সারা বিশ্ব এখন তোলপাড়।

এই সম্পর্কের কথা প্রকাশ হওয়ার পর ফার্স্টলেডি মেলানিয়া ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের থেকে দূরে সময় কাটাচ্ছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যখন ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের প্রধান নির্বাহীদের সঙ্গে ডাভোসে বৈঠক করছেন তখন তার পাশে নেই তার স্ত্রী মেলানিয়া।

তিনি যৌন কেলেঙ্কারির ওই কাহিনী ফাঁস হওয়ার পর একা একা চলে গেছেন ওয়েস্ট পাম বিচের উদ্দেশে। সেখানেই ওয়াশিংটন ডিসিতে একটি অভিজাত হোটেলে রাত কাটিয়েছেন।

মেলানিয়া ট্রাম্প বৃহস্পতিবার বিকালে পূর্ব ঘোষিত নয়, এমন সফরে চলে গিয়েছেন ওয়েস্ট পামের উদ্দেশে।

কিন্তু তার তো তার স্বামী ট্রাম্পের সঙ্গে ডাভোস সম্মেলনে যোগ দেয়ার শিডিউল ছিল। কেন তিনি তা গেলেন না? এ বিষয়ে হোয়াইট হাউজের একটি সূত্র লন্ডনের অনলাইন ডেইলি মেইলকে শুনিয়েছেন হতাশাজনক খবর।

তিনি বলেছেন, তাদের এ সম্পর্ক হতাশাজনক। অসম্মানজনক। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে মেলানিয়া ট্রাম্পের সম্পর্কে টান টান অবস্থা বিরাজ করছে।

এ মাসের প্রথম দিকে খবর প্রকাশিত হয় যে, পর্নো তারকা স্টর্মি ডানিয়েলসের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক ছিল ট্রাম্পের। ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে তাদের এই সম্পর্কের বিষয়ে মুখ বন্ধ রাখতে ওই পর্নো তারকাকে ট্রাম্পের পক্ষ থেকে দেয়া হয় এক লাখ ৩০ হাজার ডলার। এরপরই একটি সেলিব্রেটি গ্যাগাজিনে ওই পর্নো তারকার বিস্তারিত বিবরণ প্রকাশিত হয়।

এর আগে তা প্রকাশিত হয় নি কোথাও। তবে এসব বিষয়ে মেলানিয়া ট্রাম্পের মুখপাত্র স্টেফানি গ্রিশাম বলেছেন, মূল ধারার মিডিয়া মেলানিয়া সম্পর্কে আজেবাজে কথা লিখছে।

তবে তিনি ডেইলি মেইলের রিপোর্টকে সুনির্দিষ্টভাবে মিথ্যা বলেন নি। মেলানিয়া ট্রাম্প যে হোটেলে অবস্থান করেন সে সম্পর্কে তার কাছে বিস্তারিত জানতে চায় ডেইলি মেই। কিন্তু এ বিষয়েও তিনি কোনো মন্তব্য করেন নি।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close