Featuredবিস্ময়কর

সাত মাসের শিশুর পেটে যমজ শিশু

বিস্ময়কর ডেস্ক: প্রিন্সা রাথুভা। সাত মাস বয়সী এই কন্যা শিশুর পেট হঠাৎ করেই অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে থাকে। এই নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় পড়েন তার মা মনীষা বাবা মতিসিংহ রাথুভা। তারা প্রিন্সাকে নিয়ে ডাক্তারের শরণাপন্ন হন।

এক্সরে রিপোর্টে জানা যায় তার পেটে অপরিপক্ক শিশুর ভ্রূণ রয়েছে। যদিও পরে সফল সার্জারির মাধ্যমে যমজ শিশুর ভ্রূণ অপসারণ করা হয়েছে। এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের গুজরাটে। খবর দ্য সান

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় ধরনের অবস্থাকে বলে ফিটাস ইন ফিটু অর্থাৎ মায়ের গর্ভকালীন অবস্থায় যখন একাধিক সন্তান মাতৃগর্ভে অবস্থান করে তখন একটি সন্তানের পেটের ভেতর অন্য সন্তানগুলো ঢুকে পড়ে। শিশু প্রিন্সার মাতৃগর্ভে অবস্থানকালে তার পেটের আরও দুইটি শিশুর ভ্রূণ ঢুকে পড়ে

গুজরাটের সিভিল হাসপাতালে সফল অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে প্রিন্সার পেট থেকে ১৩০ গ্রামের অপরিপক্ক যমজ ভ্রূণ সরানো হয়েছে

শিশু হাসপাতালটির সার্জারি বিভাগের প্রধান ডাক্তার রাকেশ জোশী বলেন, শিশুর পাঁচ মাস বয়স থেকে পেট বাড়তে শুরু হলেও তার বাবামা শিশুটিকে দেরি করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

১৫ ফেব্রুয়ারি শিশুটিকে আমাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার সফল সার্জারি করেছি আমরা। সে এখন সুস্থ। আর দুই দিন তাকে আমরা বাড়ি পাঠিয়ে দেব

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close