Featuredলন্ডন থেকে

লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের এজিএম অনুষ্ঠিত: মুক্তিযুদ্ধের পাঁচ সংগঠককে সম্মাননা প্রদান

শীর্ষবিন্দু নিউজ: বিলেতের ঐতিহ্যবাহী সংবাদকর্মীদের সংগঠন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের বিপুল সংখ্যক ক্লাব সদস্যদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে এজিএম ও মুক্তিযোদ্ধের পাঁচ সংগঠককে সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় পূর্ব লন্ডনের ইমপ্রেশন ইভেন্টস ভেন্যুতে  সংগঠনের প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নাহাস পাশার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুবায়ের এর পরিচালনায় সভায় বার্ষিক রিপোর্টের পর আর্থিক রিপোর্ট পেশ করেন ট্রেজারার আ স ম মাসুম।

এরপর প্রেসক্লাব সদস্যরা সংগঠনের বিগত বছরের কার্যক্রম ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনায় অংশ নেন।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় ব্রিটেনে বিশ্ব জনমত গঠনে আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে যারা সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন। সেই সকল ব্রিটেন প্রবাসী সংগঠকদের সম্মাননা জানিয়ে বাংলাদেশের ৪৮তম স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে ব্রিটেনে মুক্তিযুদ্ধের পাঁচ প্রবীন সংগঠককে সম্মাননা জানিয়েছে বিলেতের বাংলা মিডিয়ার প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব।

এওয়ার্ড প্রাপ্তরা হলেন- প্রবীণ কমিউনিটি নেতা জিল্লুর রহমান, সুলতান মাহমুদ শরীফ, শামসুল আলম চৌধুরী, ফেরদৌস রহমান এবং ডক্টর মুস্তাফিজ রহমান। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিলো মহান স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সম্মাননা পাওয়া ব্যাক্তিরা তাদের মুক্তিযুদ্ধের সময়কাল স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন। কান্নায় চোখের জল মুছতে মুছতে অনেক কথা বলতে পারেননি।

এ সময় স্মৃতিচারণ করে তারা বলেন, প্রেসক্লাবের এই আয়োজন সত্যিই ব্যাতিক্রমী। এটি বাংলাদেশী সংগঠনগুলিকে ভাল কাজে প্রেরনা যুগাবে। ভালবাসার এই স্বীকৃতি পেয়ে তারা গর্ববোধ করেন এবং ধন্যবাদ জানান লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবকে।

প্রেসক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা ও এওয়ার্ড প্রদানের পর শুরু হয় সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান চলে মধ্যরাত পর্যন্ত। এর আগে ক্লাব সেক্রেটারী মোহাম্মদ জুবায়েরের পরিচালনায় চলে পদক প্রদান অনুষ্ঠান। উপস্থিত ক্লাব সদস্য ও অতিথিদের আনন্দ প্রদানে ফাঁকে ফাঁকে চলে দেশের গান।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close