FeaturedUnited Kingdom

জালিয়াতি হয়েছিল ব্রেক্সিট গণভোটেও

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য সংগ্রহ করে মার্কিন প্রেসিডেনশিয়াল নির্বাচনে ব্যবহার করার খবর ফাঁস করে আলোচিত ক্যামব্রিজ এনালিটিকার সাবেক কর্মী ক্রিস্টোফার হুয়াইল ব্রেক্সিট বিষয়ক গণভোট নিয়ে বিস্ফোরক তথ্য দিয়েছেন।

ব্রেক্সিট ভোটার সময়ও জালিয়াতির আশ্রয় নেয়া হয়। সেসময় ক্যামব্রিজ এনালিটিকার সাথে সম্পৃক্ত একটি আইটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে অবৈধ পন্থায় টাকার লেনদেনও হয় বলে জানিয়েছেন হুয়াইল।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের একটি বিশেষ কমিটির সামনে সাক্ষদানকালে হুয়াইল বলেন, ব্রেক্সিট সমর্থক বিশেষ একটি গোষ্ঠী ব্রেক্সিটের পক্ষে সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে বিভিন্ন এপসের মাধ্যমে ভুল বার্তা ছড়াতে থাকে। বৃটিশরা না বুঝেই সেসব বার্তাগুলো বিশ্বাস করে।

জালিয়াতি করা না হলে গণভোটের ফলাফল ভিন্ন হতে পারতো বলে জানান হুয়াইল। ভোট লিভ নামের একটি ব্র্রেক্সিট প্রচারণাকারী সংঘ এ জালিয়াতির সাথে জড়িত ছিল বলেও উল্লেখ করে হুয়াইল। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন ভোট লিভ’র একজন শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তি ছিলেন।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ডিজিটাল, কালচার, মিডিয়া ও স্পোর্ট সিলেক্ট কমিটিকে দেয়া ৪ ঘন্টার সাক্ষাৎ প্রদানকালে হুয়াইল তার বক্তব্যের পক্ষ্যে বিভিন্ন প্রমাণাদিও তুলে ধরেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ২৩ জুন ব্রিটেনের ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের হয়ে যাবার প্রশ্নে এক গণভোট আয়োজিত হয় যেখানে ৫১.৯ শতাংশ ভোট ব্রেক্সিটের পক্ষে পড়ে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close