Featuredঅস্ট্রেলিয়া জুড়ে

অস্ট্রেলিয়ায় পাঁচ মন্ত্রী পদচ্যুত দ্বৈত নাগরিকত্বের কারণে

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ: অস্ট্রেলিয়ায় দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকায় পাঁচ নতুন নির্বাচিত মন্ত্রী পদচ্যুত হয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ার সংবিধান অনুসারে, দ্বৈত নাগরিকত্ব সম্পন্ন কোন ব্যক্তি নির্বাচনে রাজনৈতিক প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করা নিষিদ্ধ।

পদচ্যুত রাজনীতিবিদদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে যে, তারা নির্বাচিত হওয়ার সময় দ্বৈত নাগরিকত্বের অধিকারী ছিলেন। গত বছরও ১০ সংসদ সদস্য ও সিনেটরকে দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকার কারণে বহিষ্কার করা হয়। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, বুধবার সিনেটর ক্যাটি গাল্লাঘেরকে দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকার অভিযোগে বহিষ্কার করা হয়। এরপরই, একই অভিযোগে তদন্তাধীন আরো চার রাজনীতিবিদ পদত্যাগ করেন।

পদত্যাগকারী রাজনীতিবিদরা হচ্ছেন, নিম্নকক্ষের এমপি জাস্টিন কিয়ে, জশ উইলসন, সুজান ল্যাম্ব ও রেবেখা শার্কি। এর মধ্যে, শার্কি হচ্ছেন সংখ্যালঘু সেন্টার এলায়েন্স দলের সদস্য। গাল্লাঘেরসহ বাকি চারজন লেবার পার্টির সদস্য।

দ্বৈত নাগরিকত্বের ইস্যুটি গত বছরের জুলাই মাস থেকেই অস্ট্রেলিয়ার রাজনীতিকে অস্থিতিশীল করে রেখেছে। ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুলের জন্য হুমকি হিসেবে দেখা দিয়েছিল এই জটিলতা। পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাতে বসেছিলেন টার্নবুল। তবে নিম্নকক্ষে খালি হওয়া পদগুলোতে জয়ী হয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেন তিনি।

উচ্চ আদালতের রায় অনুসারে, গাল্লাঘের এর আসনটি ২০১৬ সালের নির্বাচনে প্রাপ্ত ভোট গণনার মাধ্যমে পূর্ণ করা হবে। অন্যান্য খালি আসনগুলোর পুন-নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত করা হবে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close