Featuredইউরোপ জুড়ে

নিশ্চিত বিজয়ের পথে এরদোগান

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: তুরস্কে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৮৬ শতাংশ ভোটের মধ্যে প্রায় ২ কোটি ৩০ লাখ ভোট পেয়ে নিশ্চিত বিজয়ের পথে বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

এ পর্যন্ত গণনা হওয়া ৮৬ ভাগ ভোটের মধ্যে এরদোগান তথা একে পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট পেয়েছে ৫৫ দশমিক ৭ শতাংশ। প্রাপ্ত ভোটের পরিমাণ ২ কোটি ৩০ লাখ।

অপরপক্ষে নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছেন মুহারেরম তথা সিএইচপি পার্টির নেতৃত্বে ন্যাশনাল এ্যালায়েন্স। তাদের প্রাপ্ত ভোটের পরিমাণ ৩৩ দশমিক ৫ শতাংশ বা ১ কোটি ৪০ লাখ।

নির্বাচিত হলে যে ক্ষমতা পাবেন এরদোগান: প্রেসিডেন্ট পদে এবার এরদোগানের সময় একটু অন্যরকম। ভোটের মাধ্যমে অনুমোদিত প্রেসিডেন্টের জন্য বেশ কিছু নতুন ক্ষমতা বলবৎ হবে। পুনর্বার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে যে ক্ষমতা পাবেন এরদোগান-

১. মন্ত্রী ও ভাইস প্রেসিডেন্টসহ সরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সরাসরি নিয়োগ দেয়ার ক্ষমতা

২. দেশের আইনি ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করার ক্ষমতা

৩. জরুরি অবস্থা ঘোষণার ক্ষমতা এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর পদ বিলুপ্ত করতে পারবেন তিনি।

নির্বাচনে ছয়জন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী রয়েছেন। কেউ যদি ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পান, তিনিই প্রেসিডেন্ট হবেন। তবে কেউই যদি ৫০ শতাংশ ভোট নিশ্চিত করতে না পারেন, ৮ জুলাই দ্বিতীয় রাউন্ডের ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

এবারের তুরস্কের নির্বাচন মূলত দুটি জোটে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। একটি পিপলস অ্যালায়েন্স। এখানে আছে এরদোগানের একে পার্টি, ন্যাশনালিস্ট মুভমেন্ট পার্টি ও গ্রেট ইউনিটি পার্টি। অপরটি ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স।

এছাড়া চারটি দল আছে- শক্তিশালী রিপাবলিকান পিপলস পার্টি, ফ্যালিসিটি পার্টি, আই পার্টি ও ডেমোক্রেটিক পার্টি। নির্বাচনে একটি বড় সুবিধা হল, এরদোগান পিপলস অ্যালায়েন্সের একক প্রার্থী।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close