Featuredদুনিয়া জুড়ে

বাংলাদেশীদের আমানত কমেছে সুইস ব্যাংকে তবে বেড়েছে ভারতীয়দের

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ: ২০১৬ সালের তুলনায় ২০১৭ সালে সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের জমা করা অর্থের পরিমাণ কমেছে ২৭ শতাংশ। ২০১৬ সালে এর পরিমাণ বেড়েছিলো প্রায় ২০ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার সুইজারল্যান্ডের কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুইস ন্যাশনাল ব্যাংক (এসএনবি) প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদনে এসব তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

২০১৭ সালে সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকে বাংলাদেশিদের জমানো অর্থের পরিমাণ ছিল ৪০ দশমিক ৭ বিলিয়ন (৪০৭ কোটি) ডলার। আগের বছরে এই অঙ্ক ছিল ৫৫ দশমিক ৮৬ বিলিয়ন ডলার। ২০১৬ সালে সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের অর্থের পরিমাণ আগের বছরের চেয়ে ২০ শতাংশ বেড়েছিল।

জুরিখভিত্তিক এসএনবি প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদক ব্যাংক ইন সুইজারল্যান্ড এ বাংলাদেশিদের জমা করা অর্থের এই হিসাব পাওয়া যায়। গোপনীয়তার জন্য সারাবিশ্বের ধনীদের সুইস ব্যাংকে অর্থ রাখার প্রবণতা দীর্ঘদিনের।

কিন্তু সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অফশোর লিকস, পানামা পেপার্স ও প্যারাডাইস পেপার্সে বিশ্বের বিভিন্ন কর স্বর্গে ধনীদের বিপুল  বিনিয়োগের তথ্য বেরিয়ে আসে।

বাংলাদেশ থেকে অর্থ পাচার হচ্ছে বলে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কর স্বর্গে বিনিয়োগকারী যাদের নাম এসেছে, তাদের বিষয়ে তদন্তের উদ্যোগ নেওয়ার কথা দুর্নীতি দমন কমিশন জানালেও তাতে কোনো অগ্রগতি আসেনি।

বাংলাদেশিদের অর্থ কমলেও সুইস ব্যাংকে বিদেশিদের অর্থ এক বছরে ১ দশমিক ৪২ ট্রিলিয়ন ফ্রাঁ থেকে বেড়ে ১ দশমিক ৪৬ ট্রিলিয়ন ফ্রাঁ হয়েছে; যদিও দেশটি বিদেশি অর্থের তথ্যের গোপনীয়তার ক্ষেত্রে অনেক ছাড় দিচ্ছে।

প্রথার বাইরে গিয়ে এখন ভারতসহ বিভিন্ন দেশের কর আদায়কারী সংস্থার সঙ্গে গ্রাহকের তথ্য বিনিময় করছে সুইজারল্যান্ড। তবে গত এক বছরে সুইস ব্যাংকে জমানো ভারতীয়দের অর্থের পরিমাণ ৫০ শতাংশ বেড়েছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close