Featuredযুক্তরাজ্য জুড়ে

লন্ডনে ট্রাম্পের ঘুমানোর জায়গাকে দুর্গ বানিয়ে ফেলেছে ব্রিটেন

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: লন্ডনের আকাশে ট্রাম্পের ব্যাঙ্গাত্মক বেবি বেলুন ‘ট্রাম্প বেবি’ ওড়াবেন বিক্ষোভকারীরা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের লন্ডন সফরকালে তার বিরুদ্ধে ব্যাপক সহিংস বিক্ষোভের আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেই আশঙ্কা থেকেই লন্ডনে ট্রাম্পের ঘুমানোর জায়গাকে দুর্গ বানিয়ে ফেলেছে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ।

সফরকালে লন্ডনের রিজেন্ট পার্কে মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট উড জনসনের বাসভবনে থাকবেন ট্রাম্প। সহিংস হামলার ভয়ে এ বাসভবন এলাকার চারপাশে নিরাপত্তা বেষ্টনী হিসেবে উঁচু কাঁটাতারের বেড়া বসানো হয়েছে।

যাতায়াতের জন্য খোলা হয়েছে একটিমাত্র বিশেষ গেট। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বাসভবনের চারপাশের রাস্তা। সেখানে ২৪ ঘণ্টা টহল দিচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী।

তিন দিনের সফরে বৃহস্পতিবার লন্ডন পৌঁছান ট্রাম্প। থাকবেন শনিবার পর্যন্ত। এ সময় লন্ডনের রাস্তাগুলোতে তার বিরুদ্ধে লক্ষাধিক মানুষ বিক্ষোভ করবেন বলে মনে করা হচ্ছে। বিপুলসংখ্যক মানুষের এ বিক্ষোভ সহিংস হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা করছে ব্রিটিশ সরকার।

এ কারণে ট্রাম্পের রক্ষায় কড়া নিরাপত্তা বসানো হয়। সহিংস বিক্ষোভ এড়াতে ব্রিটেনে বসবাসরত মার্কিন নাগরিকদেরও সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। এ মর্মে মঙ্গলবার এক সতর্কবার্তা জারি করে মার্কিন দূতাবাস।

সতর্কবার্তায় দূতাবাস কর্মকর্তারা বলেছেন, বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত বিশাল বিক্ষোভের পরিকল্পনা করেছে ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভকারীরা। শুক্রবার সেন্ট্রাল লন্ডনের বাকিংহামশায়ারে সবচেয়ে বড় বিক্ষোভের সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিন এখানেই বৈঠক করবেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে ও ট্রাম্প। এবারের ব্রিটেন সফর ট্রাম্পের জন্য খুব একটা সুখের হবে না বলে মনে করা হচ্ছে। এর প্রধান কারণ সফরকালে লন্ডনের আকাশে ট্রাম্পের ব্যাঙ্গাত্মক বেবি বেলুন ‘ট্রাম্প বেবি’ ওড়াবেন বিক্ষোভকারীরা।

এ বেলুন ওড়ানোর অনুমতি দিয়েছেন লন্ডন মেয়র সাদিক খান। ট্রাম্পের সফর উপলক্ষে লন্ডনে এমন পদক্ষেপ নেয়ার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে জানানো হয়েছে, তিন দিনের ব্রিটেন সফরে লন্ডনে বিশেষ কোনো সময় কাটাবেন না ট্রাম্প। তিনি শুধু একটি রাত সেখানে কাটাবেন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close