Featuredসিলেট থেকে

শফিককে জবাব দিতে মাঠে লুনা

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এবার অগ্নিপরীক্ষায় শফিকুর রহমান চৌধুরী। দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকেই করা হয়েছে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক।

এ কারণে নিজেকে প্রমাণে ভোটের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন তিনি। অন্যদিকে- বসে নেই নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা। ঢাকা থেকে সিলেটে এসে তিনি বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর প্রচারণায় নেমেছেন। এবার নির্বাচনে আরিফের পক্ষে দলবল নিয়ে লুনা ঐক্যবদ্ধ।

শফিক-লুনা দুই জনই সিলেট-২ আসনের বাসিন্দা। শফিকুর রহমান চৌধুরী সিলেট-২ (বিশ্বনাথ, বালাগঞ্জ ও ওসমানীনগর) আসনের সাবেক এমপি। পাশাপাশি সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন। আর তাহসিনা রুশদীর লুনা সিলেট-২ আসনের সাবেক এমপি ও নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী।

তিনি বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টাও। ২০১২ সালে এম ইলিয়াস আলী নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে ওই আসনে বিএনপির হাল ধরেছেন তাহসিনা রুশদীর লুনা। লুনাও ওই আসন থেকে বিএনপির প্রার্থী হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

নগরের বাইরের এলাকার বাসিন্দা হলেও শফিক এবং লুনা সিলেটে ‘অঘোষিত’ লড়াইয়ে নেমেছেন। এই লড়াই চলছে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে। তারা দু’জনই নিজ নিজ দলের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় ঝাঁপিয়ে পড়েছেন।

এবার সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক শফিকুর রহমান চৌধুরী।

নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর দলের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ সিলেটে এসে কর্মী সভা করেন। ওই কর্মিসভায় তিনি নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ঘোষণা করেন। শফিকুর রহমান চৌধুরীর সঙ্গে নির্বাচন পরিচালনায় সদস্য সচিব করা হয়েছে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদকে।

এবার যেহেতু নৌকা মার্কা নিয়ে নির্বাচনের  পরিচালনা কমিটি প্রধান শফিকুর রহমান চৌধুরী সে কারণে তিনিই দলীয় ভাবে নগরীর ২৭ ওয়ার্ডে ইতিমধ্যে সেন্টার কমিটি গঠনের কাজ শুরু করেছেন।

পাশাপাশি প্রতিদিনই তিনি নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। তার সঙ্গে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন উপজেলা, পৌর কমিটির শীর্ষ নেতৃবৃন্দও নির্বাচনী মাঠে সক্রিয় রয়েছেন।

শফিকুর রহমান চৌধুরী জানিয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে এবার চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। সিলেটে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ।

আমরা সবাই নৌকার বিজয়ে মাঠে সক্রিয় রয়েছি। তিনি বলেন- এবার যেহেতু আমি দায়িত্বে সুতরাং সব কিছুই দেখতে হচ্ছে। এদিকে- গত শুক্রবার সকাল থেকে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রচারণায় নেমেছেন নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী বেগম তাহসিনা রুশদীর লুনা।

তিনি ঢাকা থেকে সিলেটে এসে ওই দিন বিএনপির মেয়রপ্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর নির্বাচনী কার্যালয়ে সভায় যোগ দেন। এরপর নগরীর জিন্দাবাজারের ব্লু-ওয়াটার শপিং সিটি ও উপশহর এলাকায় গণসংযোগ করেছেন।

আজ বিকেলে তিনি নগরীর শিবগঞ্জ এলাকায় নির্বাচনী গণ-সংযোগ করবেন। বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বেগম তাহসিনা রুশদী লুনা সিলেট নগরীর যে এলাকাতেই যাচ্ছেন ইলিয়াস আলী গুমের জবাব দিতে ধানের শীষে ভোট দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন।

তাহসিনা রুশদী লুনা জানিয়েছেন সিলেটের মানুষ বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি রাখা, ইলিয়াস আলীকে গুম, নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ স্বরূপ ধানের শীষে ভোট দেবে।

যেদিকেই যাচ্ছি ধানের শীষের পক্ষে মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত অবস্থান দেখতে পাচ্ছি। এদিকে- সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এবার নৌকার মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের পক্ষে সক্রিয় ভূমিকা রাখছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীও।

তিনি এরই মধ্যে প্রচারণায় অংশ নিতে যুক্তরাজ্য থেকে সিলেটে এসেছেন। তিনিও প্রায় প্রতিদিনই নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। কখনো প্রার্থীর সঙ্গে আবার কখনো বিশ্বনাথ-ওসমানীনগরের আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close