Featuredযুক্তরাজ্য জুড়ে

মুসলিম নারীকে ব্যাংক ডাকাতের সঙ্গে তুলনা: সমালোচনার মুখে বরিস জনসন

শীর্ষবিন্দু নিউজ: ব্রিটিনের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রভাবশালী টরি নেতা বরিস জনসন হিজাব নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন।

সোমবার দেশটির ডেইলি টেলিগ্রাফ পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিবন্ধে তিনি লিখেছেন, মুসলিম নারীরা হিজাব পরলে তাদের চিঠির বাক্সের মতো দেখায়। এমনকি তাদের ব্যাংক ডাকাতের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

তার এ মন্তব্যের পর ব্রিটেনের মুসলিম গ্রুপগুলো দেশটির ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টিতে ইসলামভীতি নিয়ে তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে।

লেবার পার্টির নেতা নাজ শাহ বলেন, বরিস জনসনের সাম্প্রতিক বর্ণবাদী অবমাননাকর মন্তব্য হেসে উড়িয়ে দেয়া যায় না। তারা আসলে এমনই।

তিনি বলেন, বরিস জনসন বলেছেন- মুসলিম নারীরা দেখতে চিঠির বাক্সের মতো, তাদের ব্যাংক ডাকাতের সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে। এমনকি ইসলামকে একটি সমস্যা হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। তারা বুঝে শুনেই এসব আক্রমণ করছেন এবং জাতীয় পত্রিকায় নিবন্ধ ছেপেছেন।

ইসলাম নিয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এসব মন্তব্যের নিন্দা জানাতে হবে প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে-কে। বরিস জনসনকেও ক্ষমা চাইতে হবে বলে নাজ শাহ জানান।

ব্রিটেনে মুসলমানদের লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে যেসব অবমাননাকর মন্তব্য করা হয়, তা নিয়ে গবেষণা করছে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা টেল এমএএমএ। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায়, মুসলিম নারীদের মানবাধিকার কেড়ে নিতেই বরিস জনসন এমন মন্তব্য করেছেন।

তারা জানায়, মুসলিম নারীদের নিয়ে যখন এমন ঘৃণ্য মন্তব্য করা হয়, তখন তাদের মানসিক অবস্থা কি রকম হয়, তা নিয়ে বরিস জনসনের কোনো ধারণা নেই।

কনজারভেটিভ পার্টির জ্যেষ্ঠ নেতা সাইয়েদা ওয়ারসি গত মাসে দলের মধ্যে ইসলামভীতি নিয়ে একটি তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close