বিএনপির শীর্ষ ২৪ নেতা কেউ জেলে কেউ বিদেশে

রাজনীতি ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপরসন বেগম খালেদা জিয়াসহ দলের ২৪ জন শীর্ষ নেতা কারাগারে অন্তরীণ না হয় বিদেশে অবস্থান করছেন।

জাতীয় নির্বাচনের তিন মাস বাকি, বিএনপির এসব নেতা রাজনীতিতে সক্রিয় হতে পারছেন না। দলীয় প্রধানের মুক্তি ছাড়া নির্বাচনে অংশ না নেয়ার মতও আছে বিএনপিতে। নির্বাচনী বছরে বিএনপির সভাসমাবেশে অংশ নিতে পারছেন না তারা

বিএনপির প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক বি এম মোশাররফ হোসেন দলীয় পরিসংখ্যান তুলে ধরে গণমাধমকে বলেন, গত সাড়ে বছরে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ৬০ হাজার। এসব মামলায় আসামির সংখ্যা ২০ লাখ।

ইতোমধ্যে লাখ ১০ হাজার নেতাকর্মী জেল খেটেছেন। তিনি বলেন, বিএনপির হাজার নেতাকর্মীকে এই সময়ে খুন করা হয়েছে। গুম করা হয়েছে ৭২৮ জনকে। গুম হওয়া কিছু নেতাকর্মীর লাশ পাওয়া গেলেও অধিকাংশেরই কোনো হদিস নেই।

বিএনপির তথ্য অনুযায়ী, বেগম খালেদা জিয়ার কারাদের পর গ্রেফতার করা হয়েছে ১০ হাজার নেতাকর্মীকে। বেগম খালেদা জিয়া ছাড়াও সিনিয়র নেতাদের মধ্যে প্রায় দুই ডজন নেতা কারাগারে রয়েছেন কিংবা দেশের বাইরে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন।

এদের মধ্যে সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডনে, স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ ভারতে, ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, . ওসমান ফারুক যুক্তরাষ্ট্রে, কাজী শাহ মোফাজ্জল হোসাইন কায়কোবাদ বিদেশে, আব্দুস সালাম পিন্টু জেলে, উপদেষ্টা মোসাদ্দেক আলী ফালু সৌদি আরবে, যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরী কারাগারে, আন্তর্জাতিক সম্পাদক এহছানুল হক মিলন যুক্তরাষ্ট্রে, নাসির উদ্দিন অসীম লন্ডনে, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নান্নু করাগারে, নির্বাহী কমিটির সদস্য লুৎফুজ্জামান বাবর কারাগারে, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এম কাইয়ুম মালয়েশিয়ায়, মহানগর দক্ষিণের প্রথম যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রশীদ হাবিব কারাগারে এবং যুবদল সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু কারাগারে রয়েছেন

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close