Featuredআরববিশ্ব জুড়ে

রাজপ্রাসাদে খাশোগির ছেলে ও ভাই

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: নিহত সৌদি সাংবাদিক খাসোগির ছেলে সালাহ ও তার ভাই সাহেলকে ডেকে নিয়ে সমবেদনা জানিয়েছেন ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। গতকাল রিয়াদের ইমামা রাজপ্রাসাদে তাদের সঙ্গে সক্ষাত করেন ক্রাউন প্রিন্স।

সৌদি আরবের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যম সৌদি প্রেসের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা আনলাইন। পরে সৌদি কর্তৃপক্ষ টুইটারে তাদের সাক্ষাতের ছবি প্রকাশ করেন। ছবিতে দেখা যায়, প্রিন্স সালমান খাসোগি পুত্র সালাহর সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন।

অনলাইন দুনিয়ায় ছবিটি ব্যাপকভাবে তীর্যক প্রতিক্রিয়ার শিকার হয়। ছবিটি প্রকাশের পর ডেয়ারিং টু ড্রাইভ নামের একটি  বইয়ের লেখক মানাল আল শরীফ তার প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন তারা খাসোগি পুত্রকে সমবেদনা গ্রহণ করানোর জন্য রাজদরবারে নিয়ে গেছেন। এই ছবিটি দেখে আমার চিৎকার করে ছুড়ে ফেলে দিতে ইচ্ছা করছে।

আরব-বৃটিশ সমঝোতা কাউন্সিলের এক কর্মকর্তা চেরিস ডোলে জানিয়েছেন, সুখ্যাতি পাওয়ার জন্যই প্রিন্স সালমান খাসোগি পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানুষের প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে আরেকবার প্রমাণ হল খাসোগি হত্যাকান্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এটি আরেকটি ব্যর্থ পদক্ষেপ।

তারা পরিবারটির প্রতি সহানুভূতিশীল হওয়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু আমরা এমন একটি ছবি দেখতে পাচ্ছি যেটা হাজার রকম কথা বলে। ছবিটি যেন ক্রাউন প্রিন্স সালমানের সঙ্গে সাক্ষাতে খাসোগি পুত্র সালাহের দুঃখের গল্প বলছে।

এদিকে রোষানলে পড়ার ভয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক খাসোগির এক পারিবারিক বন্ধু বার্তা সংস্থা এপি’কে জানান খাসোগি ওয়াশিংটন পোস্টে প্রিন্স সালমানের বিরুদ্ধে কলাম লেখা শুরু করার পর থেকেই তার ছেলে সালাহর চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২রা অক্টোবর জরুরি কাজে তুরস্কে সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর থেকে নিখোঁজ হন সৌদি আরবের সাংবাদিক জামাল খাসোগি।

তখন থেকেই তুরস্কের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় প্রিন্স সালমানের সমালোচক এ সাংবাদিককে সৌদি সরকারের নির্দেশে হত্যা করা হয়েছে। পরবর্তীতে ১৭ দিন পর গত শনিবার কনস্যুলেট ভবনে খাসোগিকে হত্যার কথা স্বীকার করে সৌদি আরব।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close