Featuredযুক্তরাজ্য জুড়ে

বিজ্ঞানীর ছবি থাকছে ব্রিটেনের নতুন ব্যাংক নোটে

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের কেন্দ্রীয় ব্যাংক, ব্যাংক অব ইংল্যান্ড, ঘোষণা দিয়েছে নতুন ৫০ পাউন্ডের নোটে একজন সুপরিচিত ব্রিটিশ বিজ্ঞানীর প্রতিচ্ছবি থাকবে।

সেখানে রানীর ছবির সঙ্গে জীববিদ্যা, রসায়ন, প্রকৌশলবিদ্যা, গণিত শাস্ত্র, পদার্থ বিজ্ঞান, জ্যোতির্বিদ্যা কিংবা চিকিৎসা শাস্ত্রের খ্যাতিমান একজন বিজ্ঞানীর ছবি থাকবে। যিনি এতোপূর্বে মারা গেছেন।

আগামী ছয় সপ্তাহের মধ্যে দেশটির জনগণ এ বিষয়ে নিজেদের পছন্দের বিজ্ঞানীর নাম ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রস্তাব করতে পারবেন।

ইংল্যান্ডে এই মূহুর্তে ৫০ পাউন্ডের ৩৩কোটি নোট রয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

লন্ডনের সায়েন্স মিউজিয়ামে এক অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর জানিয়েছেন, ব্যাংক নোটে নতুন মুখ উঠে আসার সঙ্গে সঙ্গে আরো পরিবর্তন আসছে, ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের নতুন প্রধান ক্যাশিয়ার সারাহ জন সই করবেন নতুন নোটে।

কে হবেন ব্যাংক নোটের বিজ্ঞানী?

এখনো পর্যন্ত যে বিজ্ঞানীদের কথা ভাবা হচ্ছে, তাদের মধ্যে প্রথমেই আসতে পারে স্টিফেন হকিং এর নাম। ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাবিশ্বতত্ত্ববিদ প্রফেসর হকিং বিশ্বের সবচেয়ে খ্যাতিমান বিজ্ঞানীদের একজন।

ব্যাংক নোটে তার ছবি আসার ব্যপারে একটি বড় জনসমর্থন আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ তালিকায় বিশ্বযুদ্ধের সময় নানা জটিল সংকেতের মর্ম উদ্ধারকারী এবং কম্পিউটার আবিষ্কারের সাথে যুক্ত থাকা বিজ্ঞানী অ্যালান তুরিং এর নামও আসতে পারে।

নারী বিজ্ঞানীরাও পিছিয়ে নেই এ প্রতিযোগিতায়। অনেকেই মনে করেন, নতুন ব্যাংক নোটে একজন নারী বিজ্ঞানীরই ছবি থাকা উচিত।

সেক্ষেত্রে গণিতজ্ঞ অ্যাডা লাভলেস উঠে আসবেন তালিকার শীর্ষে। আরেকজন বিজ্ঞানীও আসতে পারেন এই তালিকায়, ডিএনএর কাঠামো আবিষ্কারে নেতৃত্ব দেওয়া বিজ্ঞানী রোজালিন্ড ফ্রাঙ্কলিন।

কিন্তু কেন নতুন নোট ছাপাচ্ছে ব্যাক অব ইংল্যান্ড?

এক বছর আগে আদৌ ৫০ পাউন্ডের নোটের প্রচলনই আর থাকবে কি না তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছিল। এই নোটটি অধিকাংশ সময় অপরাধীরা ব্যবহার করে এবং সাধারণ মানুষ বলতে গেলে তেমন ব্যবহার করে না বলে আশংকা করে থাকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

আর সেই ভাবমূর্তি পরিবর্তনের জন্য ছাপানো হচ্ছে নতুন নোট, যেখানে একজন কোন বিজ্ঞানীর ছবি থাকা মানে পুরো নোটটির ওপর একটি ইতিবাচক ছাপ পড়বে বলে বিশ্বাস অনেকের।

তবে এবারের নোটটি হবে প্লাস্টিকের, যাতে সেটি হবে টেকসই, নিরাপদ এবং যেটি জাল করা কঠিন হবে। ইংল্যান্ডে এ পর্যন্ত কাদের দেখা গেছে ব্যাংক নোটে?

২০১১ সালে ইস্যু করা ৫০ পাউন্ডের বর্তমান নোটটিতে বাষ্পীয় ইঞ্জিনের আবিষ্কারক জেমস ওয়াট এবং ম্যাথিউ বোল্টনের ছবি রয়েছে।

পলিমারে তৈরি পাঁচ ও দশ পাউন্ডের নোট প্রচলিত আছে এখন, আর ২০২০ সালে কুড়ি পাউন্ডের পলিমার ছাপা হবে।

আর মুদ্রায় রানী ছাড়া অন্য নারীর প্রতিচ্ছবি যুক্ত করার এক প্রচারণার পর ১০ পাউন্ডের নোটে যুক্ত করা হয় জেন অস্টিনের ছবি। কুড়ি পাউন্ডের নোটে ছাপা হবার জন্য ২০১৫ সালে ত্রিশ হাজার মানুষ ৫৯০জন শিল্পীর নাম প্রস্তাব করেন।

২০২০ সাল পর্যন্ত এই নোটে থাকে অর্থনীতিবিদ অ্যাডাম স্মিথের ছবি। পাঁচ পাউন্ডের পলিমার নোটে আছে স্যার উইনস্টন চার্চিলের ছবি।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close