Featuredঅন্যকিছু

যে কারণে একসঙ্গে দুটি ঘড়ি পরেন বিমানবালারা

অন্যকিছু ডেস্ক: আকাশপথে লম্বা যাত্রায় শতাধিক যাত্রীর দেখভাল করার সময় কঠিন দায়িত্ব সামলাতে হয় বিমানবালাদের। কোনও যাত্রী উত্তেজিত হয়ে গেলেও ঠিকই পেশাদারিত্ব বজায় রেখে চলেন তারা। যেকোনও পরিস্থিতিতে মাথা ঠাণ্ডা রেখে সব ধরনের বিপদ থেকে উতরে ওঠার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় তাদের।

লক্ষণীয় ব্যাপার হলো, পরিস্থিতি হাতের মুঠোয় রাখতে আকাশযানের অভ্যন্তরে কাজের বেলায় দুই হাতে দুটি ঘড়ি পরেন বিমানবালারা। দ্য ট্রাভেল ওয়েবসাইট জানিয়েছে, এর পেছনে রয়েছে কিছু কারণ।

ধরা যাক, ফ্লাইটের ভেতরে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা সৃষ্টি হয়েছে। ঠিক কখন তা ঘটেছে সেই সঠিক সময় পরে কর্মকর্তাদের জানানোর ক্ষেত্রে একসঙ্গে দুটি ঘড়ি পরে থাকলে ফ্লাইট ক্রুদের জন্য সুবিধাজনক হয়।

আকাশে উড়তে থাকার সময় জরুরি অবস্থা সৃষ্টি হলে বিমান অবতরণের পর তা খতিয়ে দেখার সুবিধার্থে পুরো বিবরণ দিতে হয় কেবিন ক্রু সদস্যদের। সুতরাং দুটি ঘড়ি হাতে থাকলে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার বিবরণ হিসেবে কাগজপত্র ও প্রতিবেদনে যথাযথ সময়ের কথা উল্লেখ করতে সক্ষম হন তারা। আকাশপথে বিমানবালারা দায়িত্বরত অবস্থায় বিমানে ঠিক কী ঘটেছে তা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়ায় অনেক সময়।

এদিকে একাধিক টাইমজোনের মধ্যকার গন্তব্যে ভ্রমণ করা সহজ কিছু নয়। তাই দুই হাতে দুটি ঘড়ি পরার আরেকটি সুবিধা আছে। এর মাধ্যমে বহির্গমনের দেশ ও নির্দিষ্ট গন্তব্যের সময়জ্ঞান ক্রু সদস্যদের নখদর্পণে থাকে। ফ্লাইটের সময় অনুসরণেও তা সহায়ক হয় তাদের জন্য। একইসঙ্গে ফ্লাইট বিলম্ব ঘটলে কখন তা অবতরণ করবে সবাইকে জানাতে পারেন তারা।

তাছাড়া একটা নষ্ট হলে আরেকটা কিংবা একটি হারিয়ে গেলে আরেকটি দিয়ে কাজ চালিয়ে নিতেও দুটি ঘড়ি পরে থাকেন বিমানবালারা। এর মাধ্যমে নিজেদের সময় সচেতন হিসেবেও পরিচয় দেন তারা।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close