Featuredদুনিয়া জুড়ে

২০১৯ সালের সবচেয়ে নিরাপদ ২০ এয়ারলাইনস

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ: আকাশপথে বিশ্বের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যাতায়াতের বেলায় বিমান সংস্থা নির্ভরযোগ্য ও নিরাপদ কিনা তা জেনে রাখলে নির্ভার থাকতে পারেন যাত্রীরা।

সেজন্য প্রতি বছর এয়ারলাইন রেটিংস ডটকমে প্রকাশিত বিশ্বের নিরাপদ এয়ারলাইনসের তালিকা বেশ মূল্যবান। এর মাধ্যমে জানা যায় কোন বিমান সংস্থার রেটিং কেমন।

২০১৯ সালের নিরাপদ এয়ারলাইনসের তালিকায় শীর্ষে আছে অস্ট্রেলিয়ার কানটাস। এর আগে ২০১৪ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা এক নম্বরে ছিল এটি। গত বছর যৌথভাবে এই সম্মান পায় তারা।

বিমান দুর্ঘটনা এখনও বিরল। যদিও প্রতি বছরই বিমান বিধ্বস্ততে মৃত্যুর হার বাড়ছে। সিএনএন ট্রাভেলকে এয়ারলাইন রেটিংস ডটকমের এডিটর-ইন-চিফ জিওফ্রে থমাস বলেছেন, নিরাপত্তা উদ্ভাবনীতে এভিয়েশন শিল্পে নেতৃত্ব দিচ্ছে কানটাস এয়ারলাইনস।

নির্ভরযোগ্যতার জন্য স্পটলাইটে রাখা হয়েছে, এয়ারলাইনটির অস্ট্রেলিয়া থেকে যুক্তরাজ্যে বিরতিহীন ফ্লাইট। তালিকায় স্থান পাওয়া সেরা ২০ নিরাপদ এয়ারলাইনসের সবই কার্যক্রম পরিচালনা ও নির্ভরযোগ্যতায় অসাধারণ।’

বিশ্বের ৪০৫টি এয়ারলাইনসের ডেটা বিশ্লেষণ করে শীর্ষ ২০টি নিরাপদ এয়ারলাইনের তালিকা তৈরি করেছে এয়ারলাইন রেটিংস। এক্ষেত্রে ১২টি পৃথক মানদণ্ড ব্যবহার হয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সরকারি, এভিয়েশনের গভর্নিং বডি ও শীর্ষ সংগঠনগুলোর অডিট।

এছাড়া প্রতিটি এয়ারলাইনের উড়োজাহাজের বয়স ও লাভজনকের হারের সঙ্গে দুর্ঘটনায় পড়া ও গুরুতর ঘটনার রেকর্ড ঘেঁটে দেখা হয়।

গত বছর তালিকা থেকে বাদ পড়া ইউনাইটেড এয়ারলাইনস এ বছর ফিরে এসেছে। এয়ারলাইন রেটিংস জানিয়েছে, আমেরিকার দুই বড় বিমান সংস্থা আমেরিকান এয়ারলাইনস ও ইউনাইটেড এয়ারলাইনস তাদের বহরে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক নতুন আকাশযান যুক্ত করেছে।

তবে এ বছর জাপান এয়ারলাইনস ও ইতিহাদের বাদ পড়া চোখে পড়ার মতো। এর কারণ লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরে জাপান এয়ারলাইনসের একজন পাইলটকে মাতাল অবস্থায় ধরা হয়। আর ইতিহাদ লোকসানের মুখে পড়ায় স্থান পায়নি তালিকায়।

বাজেট এয়ারলাইনসগুলোর নিরাপত্তার রেকর্ড ভালো এমন বিমান সংস্থাগুলোর তালিকাও প্রকাশ করেছে এয়ারলাইন রেটিংস। এতে নতুন স্থান পেয়েছে মেক্সিকান এয়ারলাইন ভোলারিস ও হাঙ্গেরির বিমান সংস্থা উইজ।

এয়ারলাইনসগুলোকে সেভেন-স্টার রেটিং সিস্টেমে র্যাং ক দিয়েছে এয়ারলাইন রেটিংস। শীর্ষ ২০টি এয়ারলাইন পূর্ণ সাত তারকা মর্যাদা পেয়েছে। র্যাং কিংয়ে শুধু এক কিংবা দুই তারকা নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে আরিয়ানা আফগান এয়ারলাইনস, ব্লুউইং এয়ারলাইনস, ক্যাম এয়ার ও ট্রাইগানা এয়ার সার্ভিসকে।

শীর্ষ ২০ নিরাপদ এয়ারলাইনস
এয়ার নিউজিল্যান্ড, আলাস্কা এয়ারলাইনস, অল নিপ্পন এয়ারওয়েজ, আমেরিকান এয়ারলাইনস, অস্ট্রিয়ান এয়ারলাইনস, ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ, ক্যাথে প্যাসিফিক এয়ারওয়েজ, এমিরেটস, ইভিএ এয়ার, ফিনএয়ার, হাওয়াইয়ান এয়ারলাইনস, কেএলএম, লুফথানসা, কানটাস, কাতার এয়ারওয়েজ, স্ক্যান্ডিনাভিয়ান এয়ারলাইন সিস্টেম, সিঙ্গাপুর, এয়ারলাইনস, সুইস, ইউনাইটেড এয়ারলাইনস ও ভার্জিন গ্রুপ অব এয়ারলাইনস (আটলান্টিক ও অস্ট্রেলিয়া)।

সেরা ১০ বাজেট এয়ারলাইনস
ফ্লাইবি, ফ্রন্টিয়ার, এইচকে এক্সপ্রেস, জেটব্লু, জেটস্টার অস্ট্রেলিয়া/এশিয়া, থমাস কুক, ভোলারিস, ভুয়েলিং, ওয়েস্টজেট ও উইজ।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close