যুক্তরাজ্য জুড়ে

বার্মিংহামে মৌলভীবাজারী মিলনমেলার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

আশরাফুল ওয়াহিদ দুলাল: মৌলভীবাজার জেলা জনকল্যাণ কাউন্সিল, মিডল্যান্ডস এর উদ্যোগে বার্মিংহামে মৌলভীবাজার মিলনমেলা আয়োজন করা হয়েছে। এই মিলনমেলাকে কেন্দ্র করে মৌলভীবাজারবাসীর মধ্যে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। চলছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ।

একপক্ষ করেছেন সংবাদ সম্মেলন আরেকপক্ষ অনুষ্ঠানের পর ‘জবাব’ দেওয়ার কথা ভাবছেন। মৌলভীবাজারবাসীর এ পাল্টাপাল্টিতে কমিউউনিটিতে মৌলভীবাজারী এ মিলনমেলা ব্যাপক আলোচনার খোরাক দিচ্ছে।

আগামী ৯ জুন বৃহত্তর পরিসরে বার্মিংহামে মৌলভীবাজারী মিলনমেলার আয়োজন করেছে মৌলভীবাজার জেলা জনকল্যাণ কাউন্সিল, মিডল্যান্ডস। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল বাবলু জানান- সংগঠনের ৬৭ বছর পূর্তি উপলক্ষে এ মিলন মেলার আয়োজন। এই মিলনমেলাকে সফল করে তুলতে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরে প্রাক রোড শো-ও করা হযেছে।

এদিকে মিলনমেলা যে শহরে আয়োজিত হয়েছে সেই শহরেই অধিকাংশ মৌলভীবাজারবাসীকে উপেক্ষা করা হয়েছে বলে অভিযোগ আনা হয়েছে মৌলভীবাজারবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে।

উল্লেখ্য বার্মিংহামে মৌলভীবাজারবাসীদের রয়েছে তিনটি সংগঠন। এই তিন সংগঠনের মধ্যে এক সংগঠন আয়োজন করেছে মিলনমেলা এবং অপর দুই সংগঠনের নেতৃবৃন্দ যৌথ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ মিলনমেলা আয়োজনের করছেন বিরোধিতা।

গত ৩ জুন স্মল হীথের স্থানীয় এক রেস্টুরেন্টে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন মৌলভীবাজার শহরের পরিচিত মুখ, রাজনীতিবিদ সৈয়দ এলাহি হক সেলু। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কমরেড মসুদ আহমদ, ড. এমজি মৌলা মিয়া, কয়ছর আহমদ, মুহিবুর রহমান সঞ্জব, আব্দুল বাসিদ, রাজু আহমদ, নুরুল ইসলাম কিসলু, রোহেল খান প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালন করেন কায়ছারুল ইসলাম সুমন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ‘মিলনমেলা পারস্পরিক সম্পর্ক জোরদারে, সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখার কথা থাকলেও ৯ জুনের মিলনমেলা সম্পর্কে সিংহভাগ মৌলভীবাজারবাসী রয়েছেন অজ্ঞাত’ বলে উল্লেখ করা হয়। ‘বার্মিংহামে আয়োজিত মৌলভীবাজারী মিলনমেলায় যদি বার্মিংহামে বসবাসরত উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মৌলভীবাজারবাসী অ্জ্ঞাত থাকেন তাহলে এ মিলনমেলাকে মৌলভীবাজারী মিলনমেলা বলা কোন অবস্থায়ই কাংখিত নয়’ বলেও লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন শহরে গিয়ে মিলনমেলার জন্য আয়োজিত প্রাক রোডশো গুলোতে তাদের নাম ব্যবহার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করারও অভিযোগ উত্থাপন করা হয়েছে সংবাদ সম্মেলনে।

বার্মিংহামে বসবাসরত মৌলভীবাজার জেলার অন্যান্য সংগঠন, সুপরিচিত ব্যক্তিত্বদের সাথে যোগাযোগ এবং মিলনমেলায় সম্পৃক্ত করার চেষ্টা না করে অন্য শহরের মৌলভীবাজারবাসীকে সম্পৃক্ত করার চেষ্টার কথা উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্রশ্ন উত্থাপন করা হয় যে, ’বার্মিংহামে বসবাসরত আমরা কী মৌলভীবাজারবাসী নই? তাই আমরা স্পষ্ঠভাষায় অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে আমরা উক্ত অনুষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত নই এবং এই ধরণের বিভ্রান্তিমূলক মিথ্যা অপপ্রচার করে মৌলভীবাজার জেলাবাসীকে হেয় প্রতিপন্ন না করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।’

তারা ব্রিটেন বসবাসরত সকল মৌলভীবাজারবাসীকে তথাকথিত এই মিলনমেলায় সাড়া না দেয়ার জন্য অনুরোধ জানানোর পাশাপাশি মৌলভীবাজারবাসীর নাম বিভ্রান্তি ছড়ানোর জন্য ব্যবহার না করে খোলা মন নিয়ে, সকলে মিলে মৌলভীবাজার জেলার বৃহত্তর স্বাথে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করারও আহ্বান জানানো হয় সংবাদ সস্মেলনে।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে সংবাদকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন কয়ছর আহমদ, আব্দুল বাসিদ, কায়ছারুল ইসলাম সুমন, মুহিবুর রহমান সঞ্জব প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close