Featuredইউরোপ জুড়ে

সর্বোচ্চ তাপমাত্রার কবলে পড়েছে জার্মানি

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ৭২ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার কবলে পড়েছে জার্মানি। জুন মাসের ৩০ তারিখ দেশটিতে গরম আবহাওয়ার সাম্প্রতিক সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। এদিন তাপমাত্রার পারদ ৩৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছুঁয়েছে। সূত্র: ডয়চে ভেলে।

জার্মানি আবহাওয়া বিভাগ বলছে, আগামী বুধবার দেশটিতে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত হতে পারে।

রবিবার ছিল জার্মানিতে এবারের সবচেয়ে বেশি গরমের দিন। রাইনল্যান্ড ফালৎজ-এ তাপমাত্রা ৩৮.৯ ডিগ্রি পেরোলে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর আগে ১৯৪৭ সালের জুন মাসে জার্মানির ব্যুহলেরটাল শহরে তাপমাত্রা ৩৮.৫ ডিগ্রী হলে তা রেকর্ড সৃষ্টি করে। কিন্তু গত ৩০ জুনের এই তাপমাত্রা ভেঙে দিয়েছে সেই রেকর্ড।

হামবুর্গে একটি ম্যারাথন চলাকালে ৫৭ জন প্রতিযোগী অসুস্থ হয়ে পড়েন। দমকলকর্মীরা জানান, তীব্র গরমের ফলে সেদিন জরুরি চিকিৎসা পরিষেবা চালু করতে হয় তাদের।

শুধু জার্মানিতেই নয়; পুরো ইউরোপজুড়ে বাড়ছে তাপমাত্রা। ইতোমধ্যেই ইউরোপের একাধিক দেশে শুরু হয়েছে চরম দাবদাহ। গরমের দাপটে প্রাণহানির মতো ঘটনাও ঘটেছে। ফ্রান্স ও জার্মানিতে দাবদাহের ফলে প্রাণ হারিয়েছেন বেশ কয়েকজন, যার মধ্যে বেশির ভাগই প্রবীণ ব্যক্তি।

শুধু মানুষই নয়, গরমের জেরে হার মানছে ঘরবাড়িও। প্রবল তাপে সম্প্রতি ভেঙে পড়ে স্টুটগার্টের একটি বাড়ির ব্যালকনি বা ঝুলবারান্দা। এ ঘটনায় ছয়জন আহত হলেও তেমন গুরুতর চোট পাননি কেউ।

ফ্রান্স, ইতালি, বুলগেরিয়া, পর্তুগাল, স্পেন, গ্রিস ও মেসিডোনিয়ায় তাপমাত্রা এবারের গ্রীষ্মে ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। রবিবার পোপ ফ্রান্সিসের প্রার্থনাসভায়ও উঠে আসে ইউরোপজুড়ে এই অস্বাভাবিক দাবদাহের কথা। পোপ জানান, তার প্রার্থনায় তিনি দাবদাহে আক্রান্তদের স্মরণ করবেন।

আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, এমন অস্বাভাবিক গরমের জন্য আসলে দায়ী উত্তর আফ্রিকা থেকে ইউরোপে আসা গরম হাওয়ার দমকা। তবে আগামী সপ্তাহে তাপমাত্রা কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close