Featuredযুক্তরাজ্য জুড়ে

ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের প্রতি তেরেসা মের সমর্থন

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অকর্মা বলার পর ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত কিম ড্যারকের প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে।

প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। ফাঁস হওয়া বেশ কিছু ইমেইলে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত ড্যারকের মন্তব্য ও মূল্যায়নের প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার সঙ্গে আর কাজ করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন।

এর পরই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় রাষ্ট্রদূতকে নিয়ে তাদের অবস্থান পরিষ্কার করল। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মঙ্গলবার এক টুইটবার্তায় ওয়াশিংটনে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে উন্মাদ এবং প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মেকে বোকা বলে মন্তব্য করেছেন।

ফাঁস হওয়া ওই ইমেইলগুলোতে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত কিম ড্যারক বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অকর্মা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। ব্রিটিশ পত্রিকা ডেইলি মেইল রোববার যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের একগুচ্ছ গোপনীয় ইমেইল প্রকাশ করেন।

ফাঁস হওয়া ওইসব বার্তায় ড্যারক ট্রাম্পের শাসনামলে হোয়াইট হাউসকে একেবারেই অকার্যকর ও বিভক্ত বলে মন্তব্য করেছেন। খোদ ট্রাম্পকে অকর্মা হিসেবে উল্লেখ করেছেন তিনি।

মিত্র দেশ ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূতের এ ধরনের মন্তব্যে আবারও বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে ট্রাম্প। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোতে এ নিয়ে নানা ধরনের মন্তব্য করছেন অনেকেই।

অনেকেই লিখেছেন, ট্রাম্প যে অকর্মা তা ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত বুঝতে পারলেও ব্রিটিশ সরকার বাস্তবে তা উপলব্ধি করতে পারছে না। ব্রিটিশ সরকার ঠিকই ট্রাম্পকে অনুসরণ করে যাচ্ছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close