Featuredলন্ডন থেকে

শাহ গ্লোবাল এবং স্মল ওয়ার্ল্ড রিকগনিশন নাইট ও গালা ডিনার ২০১৯ অনুষ্ঠিত

ব্রেক্সিট নিয়ে রেমিট্যান্স ইন্ড্রাস্ট্রীতে আতঙ্ক

আকরামুল হোসেন: শাহ গ্লোবাল এবং স্মল ওয়ার্ল্ড রিকগনিশন নাইট ও গালা ডিনার অনুস্টিত হয়েছে ১লা সেপ্টেম্বর। রেমিট্যান্স প্রেরণকারী প্রতিষ্ঠানের সম্ভাবনা, চ্যালেঞ্জ ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে এ ধরনের অনুস্টান আয়োজন করে টাকা প্রেরণের বৈধ লাইসেন্স প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান স্মল ওয়ার্ল্ড এর পার্টনার শাহ গ্লোবাল। বাংলাদেশ সরকারের ২ পার্সেন্ট ইনসেন্টিভের বিষয়টি তুলে ধরে সরকারের প্রশংসা করা হয় অনুষ্ঠানে।

রেমিট্যান্স ইন্ড্রাস্ট্রীতে সব সময় আতঙ্ক। বর্তমানে ফাইনান্সিয়াল অথরিটির বিভিন্ন কঠোর নিয়মের ভেতর দিয়ে চলতে হচ্ছে রেমিট্যান্স প্রতিস্টান।

পূর্ব লন্ডনের মাইল এন্ড একোলজি প্যাভিলিয়নে অনুস্টিত শাহ গ্লোবাল ও স্মল ওয়ার্ল্ড রেকগনিশন নাইট ও গালা ডিনারে শাহ গ্লোবালের সিও সানাম মিয়া বলেন, বৃটেনের এ ধরণের অনেক কঠিন আইনি বাধ্যবাধকতা ব্যবসায়ীদের অনেক সময় নিরুৎসাহিত করলেও এ ইন্ড্রাস্ট্রী বাংলাদেশ মোট জিডিপির ১২ শতাংশ যোগান দিচ্ছে। প্রবাসীদের জন্য সরকারের ২পারসেন্ট ইনসেন্টিভ নিয়ে ও কথা বলেন।

তিনি বলেন, শাহ গ্লোবাল অন্যান্য রেমিট্যান্স প্রেরণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে সাথে নিয়ে সরকারের কাছে এর গুরুত্ব তুলে ধরে গত ২ বছর ধরে কাজ করে আসছে। তিনি মনে করেন সরকারের এ ইতিবাচক উদ্যোগ প্রবাসীদেরকে দেশে টাকা পাঠাতে আরো উৎসাহিত করবে। তিনি বিজয়ী এজেন্টদের অভিনন্দন জানান
.
ব্রেকিটের কারনে পাউন্ডের ধরপতন ইন্ডাস্ট্রির জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন স্মল ওয়ার্ল্ড ইউকে এবং ইউরোপের রিজিওনাল ম্যানেজার সাম্পাইও মারকিউস।

কখনও কমপ্লাইন্স, কখনও বা জিডিপিআর এমনকি অনেক স্ক্যামের শিকার হতে হয় তাদেরকে। আইডি জালিয়াতি থেকে শুরু করে হ্যাকারদের ফান্দেও পা রাখেন নিজের অজান্তে।আর তাই না চাইলেও অনেকেই বাদ পড়ছেন ব্যবসা থেকে বললেন শাহ গ্লোবালের কমপ্লাইন্স ম্যানেজার তাছমিয়া আক্তার। ব্যবসায়ীদের মধ্যে সচেতনতা, প্রণোদনা বা রেমিট্যান্স ব্যবসার ইতিবাচক দিক তুলে ধরার জন্য এ আয়োজন।

উন্নতমানেরকাস্টমার সার্ভিস ও সবোর্চ্চ মানি প্রেরণকারী প্রতিষ্টানগুলোকে চিহ্নিত করে মোট ২০ টি এজেন্টকে অনুষ্টানে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ সময় এজেন্টদের বিভন্ন ক্যাটাগরিতে সার্টিফিকেট ও ক্রেস্ট হাতে তুলে দেন উপস্তিত কমিউনিটির বিশিষ্টজন।

প্রথম দ্বিতীয় ও তিন জনকে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম স্তান অধিকার করে যথাক্রমে মদিনা গ্রুপ ইউকে, হাজি কমিউনিকেশন, আলিফ মানি ট্রন্সফার, আহমেদ ট্রাভেল সার্ভিস লিমিটেড, আকিল এন্টারপ্রাইজ, সোনার বাংলা ট্রাভেল, আরাফাহ লিমিটেড। তারা এ ধরণের স্বৃকৃতিতে আনন্দিত।

অনুষ্টানের শুরুতেই শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শাহ গ্লোবালের ডাইরেক্টর তাহমিদ মিয়া। অনুস্টানটি সফল করার পেছনে কাজ করেন আনিছ মিয়া, হাবিব মিয়া রাশেদুল হাসান, তাসফিয়া শুভা, নাঈমা সহ আরো অনেকেই। অনুস্টানের ফাকে ফাকে চলে মনোজ্ঞ সঙ্গীত পরিবেশনা।

চ্যানেল এস টেলিভিশনের হেড অফ প্রোগ্রাম ফারহান মাসুদ খান ও এনটিভির চিফ রিপোর্টার আকরামুল হোসেনের যৌথ উপস্থাপনায় অনুষ্টানে উপস্তিত ছিলেন যুক্তরাজ্যস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের কমার্সিয়াল কাউন্সেলর এস.এম জাকারিয়া হক, ইউকেবিসিসি প্রেসিডেন্ট বজলুর রশিদ এমবিই, বিসিএ প্রেসিডেন্ট এম.এ. মুনিম, বিবিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট বশির আহমেদ, চ্যানেল এসের চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ চৌধুরী জেপি, নিউহাম কাউন্সিলের স্পীকার কাউন্সিলর নাজির আহমেদ, জেএমজি কার্গোর ফাউন্ডার মনির আহমেদ, হিল সাইড ট্রাভেলের ডাইরেক্টর হেলাল উদ্দিন খান, তাজ একাউন্টন্টের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর নুরুজ্জামানসহ সাংবাদিক ও ব্যবসায়ীগণ।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close