Featuredযুক্তরাজ্য জুড়ে

পদত্যাগ করে বরিসের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলেন হেভিওয়েট মন্ত্রী আম্বার রুড

শীর্ষবিন্দু নিউজ: চুক্তিবিহীন ব্রেক্সিট প্রতিরোধে ভোট দেয়া ২১ টোরি এমপিকে বরখাস্তের প্রতিবাদে এবার ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সাহচার্য ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন হেভিওয়েট ক্যাবিনেট মন্ত্রী আম্বার রুড।

এই কনজারভেটিভ হুইপ জানান, ভিন্নমতের এমপিদের বরখাস্ত করার বরিসের এই রাজনৈতিক তান্ডবলীলার মধ্যে আর থাকছেন না তিনি। বিবিসি, ডেইলি মেইল, দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।

শনিবার রাতে দেয়া পদত্যাগপত্রে বরিস জনসনকে তিনি বলেন, ‘চুক্তিবিহীন ব্রেক্সিট বিষয়ে প্রস্তুতি ইইউর সঙ্গে চুক্তির একটি পথ তৈরি করবে এই আস্থা নিয়েই আমি আপনার সরকারে যোগ দিয়েছি।

কিন্তু আমি এখন আর বিশ্বাস করি না যে ইউরোপিয় ইউনিয়নের সঙ্গে চুক্তি করে ব্রেক্সিট কার্যকর করা সরকারের প্রধান লক্ষ্য।’ রুড মঙ্গলবার ২১ টোরি এমপিকে বরখাস্তের ঘটনাকে ‘গণতন্ত্র ও সহনশীলতার অবমাননা’ বলে উল্লেখ করেন।

এদিকে আম্বার রুডের পদত্যাগের পর ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিট বলেছে, এই মেধাবী মন্ত্রীর পদত্যাগ হতাশাজনক। সরকারী এক সূত্র জানিয়েছে, এই পদত্যাগ খবরের কাগজের হেডলাইন তৈরি করলেও জনগণের ব্রেক্সিটের দাবি পরিবর্তন করতে পারবে না, সরকার অবশ্যই অভ্যন্তরীণ বিষয়কে আগে প্রাধান্য দেবে।

লেবার দল বলছে, আম্বার রুডের পদত্যাগই প্রমাণ করে সরকার ভেঙ্গে পড়ছে। বিদ্রোহী টোরি এমপি ডেভিড গোগ ও রোরি স্টুয়ার্ট রুডের পদত্যাগকে ‘সাহসী সিদ্ধান্ত’ ও ‘ব্রেক্সিট চুক্তি কার্যকরের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ অবস্থানের বার্তা’ বলে মন্তব্য করেন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলো বলছে, ক্রস-পার্টি এমপিরা পার্লামেন্টের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণের পর এটি বরিসের জন্য আরেক ধাক্কা। তারা চুক্তিবিহীন ব্রেক্সিট বন্ধের আইন পাশে ভোট দেয়া ছাড়াও ১৫ অক্টোবর বরিসের আগাম নির্বাচনের পরিকল্পনা বাতিল করেন। এর প্রেক্ষিতে দলের বিরুদ্ধে যাওয়া ২১ টোরি এমপিকে বরখাস্ত করেন বরিস।

এক সাক্ষাতকারে রুড বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আগ্রাসী ও ভয়ঙ্কর সিদ্ধান্ত’ নিয়েছেন। তিনি পার্লামেন্টকে জনগণের বিরুদ্ধে নিয়ে তাদের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভে অংশ নিতে বাধ্য করেছেন।’

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close