Featuredযুক্তরাজ্য জুড়ে

যুক্তরাজ্যে অবৈধদের বৈধতায় ‘লং রেসিডেন্স আইন’ ২০ বছর থেকে পূনরায় ১৪ বছরে কার্যকরের দাবী

শীর্ষবিন্দু নিউজ, লন্ডন: যুক্তরাজ্যে বর্তমানে অবস্থানরত বিভিন্ন ভাষাভাষীদের মধ্যে বৈধ কাগজপত্রহীনদের জন্য ১৪ বছরের দীর্ঘদিনের স্থায়ী বাসিন্দা (লং রেসিডেন্স রুল) হিসেবে আইন পুনরায় কার্যকর করার আহবান জানিয়েছেন ব্রিটিশ মানবাধিকার সংস্থার কর্মীরা।

মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, হোম অফিসের ২০ বছরের আইনটি একটি বাস্তবধর্মী আইন নয় কারন একজন বৈধ কাগজপত্রহীন অভিবাসী ২০ বছর একটি দেশে থাকার পর তা প্রমান করে বৈধতা পাওয়ার পর তাকে স্থায়ী না করে ১০ বছরের রুটে আরও ৩ বার ভিসা নবায়ন করা যা তাকে আইনগত ভাবে সঠিক মূল্যায়ন করেনা।

১৪ বছরের লং রেসিডেন্স রুল যেটি ২০১২ পর্যন্ত বলবৎ ছিল, সেই আইনটি দ্বারা একজন বৈধ কাগজপত্রহীন অভিবাসীর ব্রিটেনে স্থায়ী বাসিন্দা (ILR) হওয়ার সুযোগ ছিল কিন্তু হোম অফিসের দাবি মোতাবেক পরিবর্তিত ২০ বছরের লং রেসিডেন্স রুল সেটিতে সেই সুযোগটি নেই। কারন ২০ বছরের লং রেসিডেন্স রুল শুধু বৈধ কাগজপত্রহীনদের ১০ বছরের রুট (DLR) দেয়া হয় এবং এই ১০ বছরে তাদের আরও ৩ বার ভিসা বাড়ানোর আবেদন করতে হয়। তাই হোম অফিসের ১৪ বছরের লং রেসিডেন্স আইনটি ২০ বছরে পরিবর্তনের ফলে অধিকাংশ ক্ষেত্রে পরিবর্তন হয়ে যায়।

মানবাধিকার সংস্থার কর্মীদের মতে, একজন অভিবাসী ১৪ বছর একটি দেশে থাকার পর তাকে যদি বিতাড়িত করা হয় তাহলে পরবর্তীতে সে আর স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেনা যা তার জন্য অমানবিক (হিউম্যান রাইটস আর্টিকেল ৮) ইউরোপের বেশিরভাগ দেশে সাধারণত ৫ বছরের বেশি যারা আছেন তারা বৈধতাকরনের আওতায় পড়ে যান অথচ ব্রিটেনে ১৪ বছর থাকার পরও অনেককে বিতাড়িত করা হয়।

এই সব অভিবাসীরা সবাই কর্মক্ষেত্রে অভিজ্ঞ তাই তাদের বৈধতা দিলে তারা তাদের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ব্রিটেনের অর্থনীতি ও সমাজে বিরাট অবদান রাখতে পারবে। তাই উপরের বিষয়গুলি বিবেচনা করে বৈধ কাগজপত্রহীন অভিবাসীদের বৈধতাকরনের জন্য ২০ বছরের লং রেসিডেন্স আইনটি বাতিল করে পুনরায় ১৪ বছরের লং রেসিডেন্স আইনটি কার্যকর করা এখন সময়ের দাবী বলে উল্লেখ করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে পরিবর্তিত নতুন আইনে, বৈধ কাগজপত্রহীনদের জন্য এই আইন করা হয় যা ১৪ বছরের লং রেসিডেন্স রুল নামে পরিচিত ছিলো। এই আইন ২০০২ থেকে ২০১২ পর্যন্ত বলবৎ ছিল পরবর্তীতে ব্রিটেনের হোম অফিস এই আইনটিকে পরিবর্তন করে ২০ বছরে নিয়ে যায়।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close