আজ বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১
শীর্ষ খবর
Logo বৃটেনে ছলনার বেড়াজালে আটকা পড়া এক বাংলাদেশি Logo ডায়াবেটিস রোগীদের টিকা নিতে আহ্বান জানিয়েছে বৃটিশ ডায়াবেটিক এসোসিয়েশন Logo করোনায় মারা যাওয়াদের কথা বলতে গিয়ে বেদনায় কুঁকড়ে গেলেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী Logo দেশে প্রথম দিন করোনা টিকা নিলেন ২৬ জন Logo কাঁদছে বৃটেন: করোনায় মৃত্যু ১ লাখ ছাড়িয়েছে Logo ফেনগ্রাম সমাজ কল্যাণ সংস্থা ইউকের ভার্চুয়াল দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা Logo যুক্তরাজ্যে পূর্বাচল-দ্য ইস্টার্ন স্কাই এর কার্যকরী কমিটির বার্ষিক সাধারণ সভা ও নির্বাচন সম্পন্ন Logo পিরিয়ডের সময়ের শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে নতুন গবেষণা Logo পবিত্র কাবা শরিফের ওপরে দেখা যাবে পূর্ণিমার চাঁদ Logo সিলেটের খাদিম পাড়া হাসপাতালে যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের সাথে গরু ছাগলের মতো আচরন করার অভিযোগ

মালয়েশিয়ায় অর্থ পাচারকারীদের তথ্য চাইলেই পাবে বাংলাদেশ সরকার

প্রকাশ কাল: শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৪১ পূর্বাহ্ন

শীর্ষবিন্দু নিউজ, ঢাকা: বাংলাদেশ থেকে অনেকে বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচার করেছেন। অনেক দেশ এই সব অর্থ পাচারকারীদের তথ্য সরকারকে দিতে আগ্রহী নয়। কিন্তু মালয়েশিয়ায় যারা অর্থ পাচার করছেন সে তথ্য সরকার চাইলেই পেতে পারে। সম্প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন জানিয়েছেন এ কথা।

বাংলাদেশ বিমানবন্দরে যখন কোনও বাংলাদেশি ইমিগ্রেশন পার হন তখন অভিবাসন কর্তৃপক্ষ তার মালয়েশিয়ার ভিসা পেজ পরীক্ষা করলেই বিষয়টি বেরিয়ে আসবে। মালয়েশিয়ায় ‘মাই সেকেন্ড হোম’ সুবিধার অধীনে যারা পঞ্চাশোর্ধ্ব তাদের সর্বনিম্ন ৪০ হাজার ডলার ও পঞ্চাশের নিচে যারা তাদেরকে ৮০ হাজার ডলার জমা দিতে হয় মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষের কাছে। ২০১৮ সাল পর্যন্ত চার হাজার বাংলাদেশি এই সুবিধা নিয়ে থাকলে বাংলাদেশ থেকে অন্তত ১,৪০০ কোটি টাকা মালয়েশিয়ায় পাচার হয়েছে (জনপ্রতি সর্বনিম্ন ৪০ হাজার ডলার ধরে)।

এ প্রসঙ্গে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, তথ্য চাইলে পাওয়া সম্ভব কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে চাইতে হবে। বাংলাদেশ ও পাচারকারী যেসব দেশের নাম উল্লেখ করা হয় সবাই জাতিসংঘ দুর্নীতিবিরোধী কনভেনশনের সদস্য। এছাড়া তথ্য চাওয়ার জন্য অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক নিয়ম রয়েছে। জাতিসংঘ কনভেনশনের অধীনে চুক্তি করে তথ্য পাওয়া সম্ভব।

২০০৮ সালে পাচারকৃত অর্থ ফেরত আনার উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, ‘একজনের ক্ষেত্রে যেটি করা হয়েছে সেটি অন্যজনের ক্ষেত্রেও যে করা সম্ভব হবে বলে বোঝা যাচ্ছে। ফলে শুধু তথ্য পাওয়ার পাশাপাশি পাচারকৃত অর্থ ফেরত আনা ও পাচারকারীদের দায়বদ্ধ করা সম্ভব।’

এ বিষয়ে সাবেক একজন কুটনীতিক বলেন, সরকার চাইলেই কে পাচার করছে সেই তথ্য পেতে পারে কিন্তু এর জন্য দরকার রাজনৈতিক সদিচ্ছা। অর্থ পাচারের বিষয়টি সুশাসনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সরকারের সর্ব্বোচ্চ মহল থেকে একদম নিচে যারা রয়েছে সবাই বিদেশি বিনিয়োগ সংগ্রহের কথা বলে থাকেন কিন্তু আমাদের দেশ থেকেই বিদেশে অর্থ চলে যাচ্ছে। এর ফলে উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। পাশাপাশি অর্থ পাচারের কারণে অভ্যন্তরীণ সম্পদ কমে যায় এবং উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের জন্য বিদেশ থেকে ঋণ করতে হয়।

উল্লেখ্য, ২০০২ সাল থেকে ২০১৮ পর্যন্ত চার হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি মালয়েশিয়ায় ‘মাই সেকেন্ড হোম (এমএম২এইচ)’ সুবিধা নিয়েছেন। এমএম২এইচ-এর ওয়েবসাইট অনুযায়ী যারা এই সুবিধার আওতায় মালয়েশিয়ায় যান তাদের ভিসা ক্যাটাগরি এমএম২এইচ। তাদের পাসপোর্টের ভিসার পাতাতেই বলা থাকে ওই ব্যক্তি কী উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়া যাচ্ছেন। এই ভিসার মেয়াদ ১০ বছর এবং এই মেয়াদে যতবার ইচ্ছে তিনি মালয়েশিয়ায় আসা-যাওয়া করতে পারবেন।


এই বিভাগের আরও সংবাদ

পুরাতন সংবাদ

  • নামাজের সময়সূচি
  • বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১
  • সূর্যোদয় :- ৫:১০ সূর্যাস্ত :- ৬:৪৯
    নাম সময়
    ফজর ৪:১৫
    যোহর ১২:১০
    আছর ৪:৫০
    মাগরিব ৬:৪৫
    এশা ৮:১৫