বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৯:৪৯

করোনা এড়াতে শিশুদের ধরে আদর না করার পরামর্শ

করোনা এড়াতে শিশুদের ধরে আদর না করার পরামর্শ

/ ২২২
প্রকাশ কাল: শনিবার, ২১ মার্চ, ২০২০

শীর্ষবিন্দু নিউজ: রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা একশ ৯৯ জন। তবে কেউ এখন পর্যন্ত সেখানে মারা যায়নি। এই পরিসংখ্যান চীন বা ইতালির তুলনায় ততটা ভয়ের নয়।

অথচ রাশিয়ায় প্রতিদিনই নিশ্চিত করোনা ধরা পড়ার সংখ্যা সংখ্যা বেশ কয়েক ডজন করে বাড়ছে। অনেকেই দু’সপ্তাহ ধরে কোয়ারেন্টিনে আছেন। সে দেশের হাসপাতালগুলো জরুরী অবস্থায় রয়েছে।

সের্গেই বুচেষ্টা বলেন, ছোটরা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে না, এটা মিথ্যা কথা। করোনাভাইরাস একটি সাধারণ তীব্র শ্বাসযন্ত্রের ভাইরাল সংক্রমণ থেকে দীর্ঘতর স্থায়ী হয়। দুই থেকে তিন সপ্তাহ, এবং কখনো কখনো অপ্রতিরোধ্য নিউমোনিয়া পর্যন্ত গড়ায়।

তিনি আরো বলেন, গুজব আছে- বাচ্চারা করোনায় একেবারেই আক্রান্ত হয় না এবং বয়স্কদের জন্য তারা কোনো বিপদের কারণ নয়। এটা মিথ্যা। শিশুরা অসুস্থ হচ্ছে। যদিও তাদের ক্ষেত্রে অনেক সময় মৃদু আক্রমণ করছে। একটি এপিটোলজিকাল দৃষ্টিকোণ থেকেও যদি দেখি, মহামারীর চোখের ক্ষেত্রে ছোট ঘটনাকেউ এড়ানোর সুযোগ নেই।

আরেকটি কারণ হচ্ছে, বাচ্চাদের থেকে কেউ নিজেদের দূরত্বে রাখে না। অথচ এই বাচ্চা করোনাভাইরাসের ভয়াবহ বাহক হতে পারে। হয়তো হালকা উপসর্গ আছে তা ধরা পড়ল না।

রুশ এই বিশেষজ্ঞ আরো বলেন, সাম্প্রতিক গবেষণা অনুযায়ী, সব করোনা আক্রান্তের মধ্যে ১০ শতাংশ পর্যন্ত অ্যান্টিটিক বাহক থেকে আসে। এই সাথে যোগ করুন শিশুদের জড়িয়ে ধরা এবং চুম্বন করার অভ্যাস, শিশুদের খুবই কম স্বাস্থ্যবিধি দক্ষতা। এ থেকেই বুঝতে পারছেন যে প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায় শিশুরাও বয়স্কদের জন্য আরো বিপজ্জনক হতে পারে। আমি বড়দের, দাদি-নানিদের, দাদা-ভাইদের বলবো, যতটা সম্ভব শিশুদের সঙ্গে মাখামাখি সীমিত করুন। পরবর্তীকালের সুরক্ষার জন্যই এটা দরকার। আর আমার শেষ কথা হচ্ছে শুধু শিশুরা নয়, এখন সার্বিকভাবে সবার নিরাপত্তা নিয়েই আমাদের ভাবতে হবে।




Comments are closed.



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2022