মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৩:১৬

সিলেটে হঠাৎ তাপমাত্রা বেড়ে প্রায় ৩৯ ডিগ্রি, বেড়েছে এসির চাহিদা

সিলেটে হঠাৎ তাপমাত্রা বেড়ে প্রায় ৩৯ ডিগ্রি, বেড়েছে এসির চাহিদা

শীর্ষবিন্দু নিউজ, সিলেট / ১১১
প্রকাশ কাল: শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০২২

সিলেটবাসী পুড়ছেন তীব্র গরমে। বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সপ্তাহজুড়ে সিলেটে আবহাওয়ার তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। শুক্রবার (১৫ জুলাই) থেকে সিলেটে তাপমাত্রা কমতে পারে বলে জানা যায়। এছাড়া আগামী ১৭ জুলাই থেকে এ অঞ্চলে বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়া পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়।

এসময় একটু শীতল বাতাস পাওয়ার আশায় সিলেটের লোকজন এয়ার কন্ডিশন (এসি) ক্রয় করছেন। গত কয়েকদিন ধরে সিলেটে বেড়েছে এসির চাহিদা। তবে এসি স্থাপনের জন্য টেকনিশিয়ান সংকট দেখা দিয়েছে।

 বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সিলেটে তাপমাত্রা ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। তীব্র গরমে সিলেটবাসীর জনজীবন দুর্বিষহ হয়ে ওঠেছে। তাই একটু শীতল হাওয়া পেতে সিলেটের অবস্থাসম্পন্ন লোকজন এয়ার কন্ডিশন (এসি) ক্রয় করছেন। এসি ক্রয় করলেও টেকনিশিয়ান সংকটে রয়েছেন তারা। বিশেষ করে পুরাতন এসি মেরামত ও নতুন এসি লাগানোর কারণে এসব টেকনিশিয়ানদের সংকট দেখা দিয়েছে।

নগরীর কয়েকটি ইলেক্ট্রনিক্স দোকান ও শো-রুম ঘুরে ক্রেতাদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এসব ক্রেতাদের মধ্যে বেশির ভাগই এসি ক্রয় করতে এসেছেন। একজন জানান, অনেক গরম। গরমে আমাদের পরিবারের অনেকেই অসুস্থ হয়ে গেছেন। তাই এসি ক্রয় করা জরুরি হয়ে পড়েছে।

এই প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার মতিউর রহমান বলেন, গত দুই-তিন দিন ধরে এসির চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যান্য সময় ১-২ টা বিক্রি হলে গতকাল ও আজ প্রায় ১০টি করে এসি বিক্রি করেছি। প্রচুর পরিমাণের এসি বিক্রি হচ্ছে উল্লেখ একজন বিক্রেতা জানান, গরমের কারণে এসির ব্যাপক চাহিদা বেড়েছে।

অনেকেই এসি ক্রয় করছেন। তবে ক্রেতারা টেকনিশিয়ান সংকটে পড়েছেন। বিশেষ করে- পুরাতন এসি মেরামত করছেন অনেকেই। আবার অনেকেই নতুন এসি ক্রয় করে নিচ্ছেন। ফলে সিলেট নগরীতে টেকনিশিয়ান সংকট দেখা দিয়েছে।

সিলেটের আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী বলেন, বৃহস্পতিবার সিলেটে বিকালে তাপমাত্রা ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগে ২০১৪ সালের ২৪ এপ্রিল ৩৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিলো যা সিলেটের ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড ছিলো।

তিনি জানান, শুক্রবার থেকে তাপমাত্রা কমতে পারে। আর আগামী ১৭ জুলাই থেকে সিলেট শহরে ও ১৮ জুলাই থেকে বিভাগের বিভিন্ন জায়গা মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। তিনি জানান, বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে। এটি আরও ঘনীভূত হচ্ছে। ফলে উত্তপ্ত আবহাওয়া বিরাজ করছে। তবে শুক্রবার থেকে তাপমাত্রা কমতে পারে। এছাড়া সিলেটে দিন ও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলে জানান তিনি।




Leave a Reply

Your email address will not be published.



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2022