শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ০৬:০০

ইস্ট লন্ডনের সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত মাইল এন্ড স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত

ইস্ট লন্ডনের সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত মাইল এন্ড স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ন্যায় ব্রিটেনে ও বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা ও ত্যাগের মহিমায় উদযাপন হচ্ছে মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা।

মহান আল্লাহর অপার অনুগ্রহ লাভের আশায় ঈদের জামাত শেষে সামর্থ্য অনুয়ায়ী পশু কোরবানি করছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

গত ২৮ জুন বুধবার ইষ্ট লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটসের মাইল এন্ড স্টেডিয়ামে সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৯ টায়। প্রায় ১০ হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমান নারী, পুরুষ ও শিশু ঈদের জামাতে শরীক হয়েছেন।

টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের সহযোগিতায় ও স্থানীয় কমিউনিটির (ঈদ ইন দ্য পার্ক কমিটির) উদ্যোগে এ ঈদের জামাতের আয়োজন করা হয়।

এবারের ঈদুল আজহার নামাজে ইমামতি ও খুতবা প্রদান করেন বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও মারকাজি মসজিদের ভিজিটিং ইমাম মাওলানা শায়েখ নুরসালিন মিয়া।

টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন আর্ট এণ্ড কাল চ্যারাল লিড মেম্বার কাউন্সিলার ইকবাল হোসেন ও সেইফার কমিনিটি লিড মেম্বার কাউন্সিলর আবু চৌধুরি, আরো উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্পিকার কাউন্সিলার শাফি আহমেদ, কাউন্সিলর আনা মিয়া, কাউন্সিলর আমিন রহমান, কাউন্সিলর আব্দুল ওয়াহিদ, কাউন্সিলর আব্দাল উল্লাহ ও অন্যান্য কাউন্সিলারগণ।

আরো উপস্থিত ছিলেন লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারি ও সাপ্তাহিক দেশ’র সম্পাদক তাইসির মাহমুদ, ভাইস প্রেসিডেন্ট ও দর্পন মিডিয়ার কর্নধার রহমত আলি, বাংলাদেশ সেন্টারের সেক্রেটারি দিলোয়ার হোসেন, বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট কে এম আবু তাহের চৌধুরী, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের ট্রেজারার সালেহ আহমেদ, সাবেক ট্রেজারার ও অনুসন্ধানি রিপোটার আ স ম মাসুম, ক্লাবের ইভেন্ট এন্ড ফ্যাসিলিটিজ সেক্রেটারি রেজাউল করিম মৃধা, নির্বাহী সদস্য সাংবাদিক আহাদ চৌধুরী বাবু, সাপ্তাহিক সুরমার বার্তা সম্পাদক ও কবি আব্দুল কাইয়ুম, প্রবীণ সাংবাদিক মুস্তাক বাবুল, লন্ডন এডুকেশন ট্রাস্ট এর চেয়ারম্যান সাংবাদিক মো: আব্দুল মুনিম জাহেদী ক্যারল, সাংবাদিক আব্দুল কাইয়ুম, সংবাদ কর্মী জাকির হোসেন কয়েস, সাংবাদিক আলি বেবুল, চ্যানেল এস এর স্টাফ রিপোর্টার ফয়সল মাহমুদ, এন টিভির রিপোটার সাংবাদিক কয়েস আহমদ রুহেল, সাংবাদিক খালেদ মাসুদ, ডকলেন্ড ব্যাডমিন্টন ক্লাবের চেয়ারম্যান শেখ তানভির, তাকওয়া ব্যাডমিন্টন ক্লাবের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল কাহার, স্পর্টস সেক্রেটারি চান মিয়া, ট্রেজারার মুয়াজ্জিম আহমেদ রিবু, আলতাফ হোসেন, ফয়সল আহমদ, ও কমিউনিটির বিবিন্ন পেশাজীবি নেত্রিবৃন্দ।

এ সময় ইমাম মাওলানা শায়েখ নুরসালিন মিয়া বলেন, মহান আল্লাহর প্রতি গভীর আনুগত্য ও সর্বোচ্চ ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর পবিত্র ঈদুল আজহা। ঈদ ধনী-গরিব নির্বিশেষে সকলের জীবনে সুখ ও আনন্দের বার্তা বয়ে আনবে।

নামাজের পুর্বে কোরবানির তাৎপর্য তুলে ধরে বয়ান পেশ করেন মাওলানা শায়েখ নুরসালিন মিয়া। তিনি বলেন, মুসলিম সমাজে কোরবানির প্রচলন হয়েছে মূলত মুসলিম জাতির পিতা হযরত ইব্রাহীম (আঃ) এর দেখানো পথে থেকেই।

হযরত ইব্রাহীম (আঃ) এর শতবর্ষ বয়সের পর আল্লাহ তায়ালা তাকে সন্তান দান করেছিলেন। তিনি আল্লাহ কতৃক আদিষ্ট হয়ে তাঁর কলিজার টুকরো হযরত ইসমাইল (আঃ) এর কোরবানির সূত্র ধরে আজ অবধি সেই কোরবানির প্রচলন আছে। যা আজ ও মুসলিম সমাজে অত্যন্ত ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে পালন হয়ে আসছে। তিনি মুসলিম উম্মাহর জন্য বিশেষ করে বাংলাদেশের বানবাসি মানুষের জন্য দোয়া করেন।

ঈদ ইন দ্য পার্ক কমিটির অন্যতম সদস্য আখলাকুর রহমান ও কাউন্সিলার আব্দাল উল্লাহসহ অন্যান্য সদস্যরা ঈদ ইন দ্য পার্ক কমিটির পক্ষ থেকে টাওয়ার হ্যামলেটেস কাউন্সিল, লনলি অরপান, স্পন্সর, জেফোরএস সিকিউরিটি ও বাংলা মিডিয়ার সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানান। তাদের সবার সহযোগিতায় সফল ও সার্থক হয়েছে।

এবারের ঈদ ইন দ্য পার্ক, বিশেষ করে এবারের উন্নত সাউণ্ড সিষ্টেম খুব ভালো হয়েছে। কোন রকম সমস্যা ছাড়াই ঈদ ইন দ্য পার্কে নির্ধারিত সময় অনুযায়ী ঈদ জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়।

বিশেষ করে সিকিউরিটি সংস্থা জেফোরএস সিকিউরিটি পরিচালক জুয়েল চৌধুরী অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে মুসলিম উম্মার কল্যাণে দীর্ঘদিন থেকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

ঈদ ইন দ্য পার্ক কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, কাউন্সিলর আব্দাল উল্লাহ, আখলাকুর রহমান, নেছার আলী সামসু, মারফত আলী, রেজাউল করিম, রুহুল আমীন, ফকরুল ইসলাম, অরাফাত সিদ্দিকী ও জাকির হোসেন।

তাদের আরো সহযোগিতা করেন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য আহাদ চৌধুরী বাবু, প্রবীণ সাংবাদিক মুস্তাক বাবুল। সফলভাবে সিকিউরিটি দায়িত্ব পালন করেন স্বনামধন্য সিকিউরিটি সংস্থা জেফোরএস সিকিউরিটি পরিচালক জুয়েল চৌধুরী ও তার টিম।

ঈদ ইন দ্য পার্ক কমিটির অন্যতম প্রতিস্টাতা সদস্য আখলাকুর রহমান স্বাগত বক্তব্যে বলেন, ২০০৭ সাল থেকে খোলা মাঠে ঈদের নামাজ পড়ার পরিকল্পনা ছিল। এর পরের বছর ২০০৮ সাল থেকে স্টেপনিগ্রীন পার্কে প্রথম ঈদের জামাত শুরু হয়। স্টেপনি গ্রিন পার্ক ব্যবহার করতে পার্শ্ববর্তী রেডকোটের বাসিন্দাদের ও স্টেপনি এফসিকে সাহায্য করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম।

রেজাউল করিম চ্যারিটি সংস্থা ইসলামিক রিলিফ এ কাজ করার সুযোগে ফিতরা সংগ্রহ করা হয়েছে। দীর্ঘ ১৪ বছর যাবত মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদের জামাতের জন্য ঈদ ইন দ্য পার্ক আয়োজন করতে পারায় মহান আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করছি।

গত ৭ বছর থেকে আমরা মেট্রোপলিটন পুলিশের পরামর্শে মাইল এন্ড স্টেডিয়ামে এই আয়োজন চালিয়ে যাচ্ছি। প্রতি বছর এই আয়োজন সফল করার জন্য আমাদের সাহায্য করার জন্য মুসলিম কমিউনিটি, বাংলা মিডিয়া, টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিল কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2012-2024