রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০১:৩৪

আমদানি-রপ্তানিতে সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে সচেষ্ট ভারত-বাংলাদেশ

আমদানি-রপ্তানিতে সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে সচেষ্ট ভারত-বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক: ভারত প্রতিবেশী বন্ধু প্রতিম দেশ বাংলাদেশের সঙ্গে কুটনৈতিক, বাণিজিক্য ও অর্থনৈতিক সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলেছে। বুধবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ও এফবিসিসিআই-এর পরিচালক আব্দুল ওয়াহেদের সভাপতিত্বে জেলার আমদানি-রপ্তানিকারক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভারতীয় ডেপুটি হাইকমিশনার মি. সন্দীপ মৈত্র একথা বলেন।

তিনি বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার বাণিজ্য এখন মূলত স্থলবন্দর কেন্দ্রীক। অথচ দু’দেশেরই অধিকাংশ স্থলবন্দরে পর্যাপ্ত অবকাঠামোগত ও অনান্য সুযোগ-সুবিধা নেই। যার কারণে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। এ বাধা দূরীকরণে ভারত ও বাংলাদেশ উভয় দেশের সরকার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা প্রশাসনের পক্ষে এনডিসি নেজারত আল মামুন, স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার (রাজশাহী শাখা) ব্যবস্থাপক আমিরুল ইসলাম,  জেলা চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি খাইরুল ইসলাম, ম্যাংগো মার্চেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মনিরুল ইসলাম, সোনা মসজিদ স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি কবির রহমান ও জেলার ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশিদের ভারতীয় ভিসা প্রদান প্রক্রিয়া আরো সহজতর করা হয়েছে। বিশেষ করে ভারত নির্ভর ব্যবসায়ীদের ব্যবসার অবস্থা বিবেচনা করে ভিসার মেয়াদ ছয় মাস, এক বছর, এমনকি পাঁচ বছর পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, রোগীদের অবস্থা বিবেচনায় এনে জরুরিভাবে ভিসা দেওয়া হচ্ছে।

তবে, ভিসার ব্যাপারে সরাসরি ভারতীয় উপ-হাইকমিশনার অফিস রাজশাহীতে যোগাযোগ করার জন্য এ অঞ্চলের বাসিন্দাদের অনুরোধ করেন তিনি।

বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা এসময় ভারত যাতে কাঁচা ও পচনশীল পণ্য ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করে দ্রুত ছাড়পত্র দেয় সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে ভারতীয় ডেপুটি হাইকমিশনার মি. সন্দীপ মৈত্রকে অনুরোধ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি ভারতীয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানোর আশ্বাস দেন।

ভারতীয় ডেপুটি হাইকমিশনার মি. সন্দীপ মৈত্র বলেন, সীমান্তে বর্তমানে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজ করছে। ফলে সীমান্তে হতাহতের সংখ্যা অনেকাংশে কমেছে। তবে অবৈধপথে ভারতে অনুপ্রবেশ রোধে বিএসএফ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে।

তিনি এসময় সোনামসজিদ স্থলবন্দরের বিপরীতে ভারতের মহদীপুর বন্দরের রাস্তাসহ বিভিন্ন সমস্যা দূর করার আশ্বাস দেন।

এসময় মি. সন্দীপ মৈত্র বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিরাজমান দ্বিপাক্ষিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ থেকে ঘনিষ্ঠতর হবে বলে আশা প্রকাশ করেন এবং ব্যবসায়ীদের দাবি-দাওয়া ও দু’দেশের বাণিজ্যিক ভারসাম্যহীনতা কমাতে  প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দেন। এর আগে দুপুরে তিনি সোনামসজিদ স্থলবন্দর পরিদর্শন করেন।




Comments are closed.



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2012-2024