বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৮:৪৩

গুগলের স্ট্রিট ভিউ গাড়ি এখন বাংলাদেশের রাস্তায়

গুগলের স্ট্রিট ভিউ গাড়ি এখন বাংলাদেশের রাস্তায়

দেশের বিভিন্ন এলাকায় চলবে বিশ্বখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাইট গুগলের গাড়ি। রাজধানী ঢাকা ও বন্দরনগর চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন শহরে গাড়িটি গুগল ম্যাপে বাংলাদেশের পথঘাট, আকর্ষণীয় পর্যটন স্থান ও বিভিন্ন মজাদার রেস্টুরেন্টের অবস্থান তুলে ধরবে।

গত শনিবার রাজধানীর একটি হোটেলে গুগলের স্ট্রিট ভিউ গাড়ি বাংলাদেশে চলার জন্য উন্মুক্ত করা হয়। যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, গুগল এশিয়া প্যাসেফিকের পাবলিক পলিসি অ্যান্ড গভর্নমেন্ট রিলেশন বিভাগের পরিচালক অ্যান লেভিন ও গুগলের এমারজিং মার্কেটিং অ্যাট গুগল এশিয়া প্যাসেফিকের প্রধান জেমস ম্যাকলার ক্যামেরা লাগানো গুগলের গাড়িটিকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান।

স্বাগত অনুষ্ঠানে যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, প্রযুক্তি অর্থনৈতিক উন্নয়নের একটি শক্তিশালী চালিকা। আর ইন্টারনেট সেই শক্তিশালী প্লাটফর্ম, যার মাধ্যমে বাংলাদেশ সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানো সম্ভব। স্ট্রিট ভিউয়ের বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন বাংলাদেশের জনগণের নানা ধরনের প্রয়োজন মেটাতে সাহায্য করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

অন্যান্য বিশিষ্ট জনের মধ্যে এ সময় ‘প্রথম আলো’র সম্পাদক মতিউর রহমান, ‘ডেইলি স্টার’-এর সম্পাদক মাহফুজ আনাম ও মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ ক্যামেরা বসানো এই গাড়িটির তোলা প্যানারোমিক ছবির মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের আগ্রহী ব্যবহারকারীরা খুব সহজে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত এলাকার ছবি দেখতে পাবেন। এ ছাড়া বিদেশি পর্যটকেরা পাবেন বাংলাদেশের বিভিন্ন পর্যটনকেন্দ্রের দিক নির্দেশনা। একই সঙ্গে গুগলে দেওয়া বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে বাংলাদেশি পণ্যের প্রচার বাড়ানো যাবে। জনপ্রিয় গুগল স্ট্রিট ভিউ-সেবা এখন বিশ্বের ৪০টির বেশি দেশে বিদ্যমান।

বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব খোরশেদ আলম চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশে পর্যটকদের সংখ্যা বাড়ানোর জন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে। আশা করছি, গুগল ম্যাপে স্ট্রিট ভিউয়ে তোলা ছবি ও দিকনির্দেশনা বাংলাদেশে পর্যটন খাতের উন্নয়নে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব এন আই খান বলেন, ‘তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় বাংলাদেশে ‘গুগল ম্যাপস স্ট্রিট ভিউ’ আনতে গুগলকে সহযোগিতা করছে। এ ক্ষেত্রে তিনি প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদের ভূমিকার প্রশংসা করেন।

গুগল এশিয়া প্যাসেফিকের অ্যান লেভিন বলেন, স্ট্রিট ভিউর ছবিগুলো বাংলাদেশের ব্যস্ত রাস্তাকে নতুন আঙ্গিকে দেখার সুযোগ করে দেবে। সেই সঙ্গে বিদেশি বিনিয়োগ ও পর্যটক এ দুটোকেই বাংলাদেশের দিকে আকৃষ্ট করবে। তিনি জানান, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও গ্রাহকদের মানচিত্রের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করে স্ট্রিট ভিউ যেকোনো দেশের অর্থনীতিতে দীর্ঘমেয়াদি অবদান রাখতে পারে। গুগল ম্যাপে পরবর্তী সময় বাংলাদেশের ৩৬০ ডিগ্রি প্যানোরামিক ছবি শেয়ার করা হবে বলে জানান অ্যান।

গুগলের স্ট্রিট ভিউয়ের একটি তথ্যচিত্র উপস্থাপন করে জেমস ম্যাকলার বলেন, এই প্রযুক্তি ব্যবহারকারীর জন্য সব ধরনের সুবিধা বজায় রাখে। পাশাপাশি এখানে ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা কঠোরভাবে অনুসরণ করা হয়। গুগল মুখমণ্ডল ও গাড়ির নম্বরফলক ঝাপসা করার একটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে, যেন সেগুলোকে শনাক্ত করা না যায়।

এ ছাড়া ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে তাঁদের কোনো ছবি ঝাপসা করার অনুরোধ পেলে, গুগল তা গুরুত্বসহ বিবেচনা করে। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাক্সেস টু ইনফরমেশনের (এটুআই) প্রকল্প পরিচালক কবির-বিন-আনোয়ার, গুগল বাংলাদেশের কান্ট্রি কনসালট্যান্ট কাজী মনিরুল কবির, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন কারিগরি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
All rights reserved © shirshobindu.com 2012-2024