রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫১

গোপনেই বিয়ে সারলেন বরিস জনসন

গোপনেই বিয়ে সারলেন বরিস জনসন

/ ৫৩
প্রকাশ কাল: রবিবার, ৩০ মে, ২০২১

শীর্ষবিন্দু নিউজ, লন্ডন: গোপনেই বিয়ে সারলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। অবশেষে বরিস জনসন তার বান্ধবী ক্যারি সায়মন্ডসকে লাইফ পার্টনার হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন।

শনিবার ওয়েস্টমিনস্টার ক্যাথেড্রালে তাদের এই বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে বলে খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি ও সিএনএন। উভয় সংবাদ মাধ্যমই একে ‘সিক্রেট ওয়েডিং’ বা গোপনে বিয়ে বলে আখ্যায়িত করেছে।

জানা যায়, হানিমুন শেষে আগামী সপ্তাহে কাজে ফিরেবেন বরিস জনসন। ৩৩ বছরে সায়মন্ডস বরিসের রাজনৈতিক সহকর্মী হিসেবে ২০১২ সালে তার মেয়র নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ নেন। ২৯ বছর বয়সে সায়মন্ডস কনজারভেটিভ পার্টির যোগাযোগ পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালনের সুযোগ পান।

বিযের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঘনিষ্ঠ কিছু বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের সদস্য। তবে এ বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ডাউনিং স্ট্রিট। বিয়ের খবরে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও তার সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ওয়ার্ক অ্যান্ড পেনশন্স বিষয়ক মন্ত্রী তেরেস কফি। তিনি টুইটে লিখেছেন- আজ (শনিবার) বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার জন্য বরিস জনসন ও ক্যারি সায়মন্ডস আপনাদের অভিনন্দন। উত্তর আয়ারল্যান্ডের ফার্স্ট মিনিস্টার আরলেন ফস্টারও তাদেরকে টুইটারে ‘হিউজ কংগ্রাচুলেশন’ জানিয়েছেন।

ডেইলি মেইলের রিপোর্টে বলা হয়েছে, সংক্ষিপ্ত সময়ের নোটিশে বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন ৩০ জন অতিথি। ইংল্যান্ডে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের বিধিনিষেধের অধীনে সর্বোচ্চ যে পরিমাণ মানুষ একত্রিত হতে পারেন তার বেশি সেখানে উপস্থিত হননি। ক্যাথোলিক এই বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজনে প্রস্তুত ছিলেন চার্চের স্বল্প সংখ্যক কর্মকর্তা। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করান ফাদার ডানিয়েল হামফ্রেস।

ওদিকে দ্য সান পত্রিকা বলছে, এই বিয়ের বিষয়ে ডাউনিং স্ট্রিটের সিনিয়র কর্মকর্তারা কিছু জানেন না। তবে বৃটিশ সময় অনুযায়ী রাত ১১টা ৩০ মিনিটে ওয়েস্টমিনস্টার ক্যাথেড্রাল থেকে লোকজনকে সরে যাওয়ার নোটিশ দেয়া হয়। এর প্রায় আধা ঘন্টা পরে সাদা পোশাকে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন মিস ক্যারি সায়মন্ডস। শনিবার রাতেই ১০ ডাউনিং স্ট্রিট থেকে মিউজিশিয়ানদের বেরিয়ে যেতে দেখা যায়।

নব দম্পতিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন এমপি ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রী ভিকি ফোর্ড। তিনি টুইটারে লিখেছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে বহু বিবাহ বিলম্বিত ও বিঘিœত হয়েছে। সব সময়ই ভালবাসাময় জীবন ভাল। আপনাদের অনেক অনেক অভিনন্দন।

উল্লেখ্য, বরিস জনসন ও তার সাবেক দ্বিতীয় স্ত্রী মেরিনা হুইলারে রয়েছে চারটি সন্তান। ২০১৮ সালে খবর প্রকাশ হয় যে, জনসন ক্যারি সায়মন্ডসের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। এর পরপরই ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে ২৫ বছর ঘরসংসার করার পর বরিস জনসন ও মেরিনা হুইলার আলাদা হয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন।

২০১৮ সালে রাজনৈতিক সাবেক সহকর্মী ক্যারি সায়মন্ডসের সঙ্গে বরিস জনসনের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের খবর প্রকাশ পায় বৃটিশ মডিয়ায়। এর ফলে তার তখনকার স্ত্রী মেরিনা হুইলারের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটে। বরিস জনসনের সঙ্গে থাকা শুরু করেন ক্যারি সায়মন্ডস। এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন জনসন। ক্যারি সায়মন্ডসে সঙ্গে নিয়ে তিনি ওঠেন ডাউনিং স্ট্রিটের সরকারি বাড়িতে।

২০২০ সালের ২৯ শে এপ্রিল ক্যারি সায়মন্ডস প্রথম শিশু সন্তান উইলফ্রেডের জন্ম দেন। একই মাসে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন জনসন। এর পরে জনসনের সঙ্গে একত্রে টেলিভিশনে উপস্থিত হন ক্যারি সায়মন্ডস। হাসপাতালে জনসনকে টিকিৎসা দেয়া এবং তাদের সন্তান প্রসবে সহায়তার জন্য জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সার্ভিসের (এনএইচএস) কর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সম্প্রতি বৃটিশ মিডিয়ায় একটি খবর প্রকাশ হয়। তাতে বলা হয় এই যুগল আগামী বছর ৩০ শে জুলাই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবেন। এ জন্য তারা বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের সদস্যদের কার্ড পাঠিয়েছেন। এরও আগে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে তারা ঘোষণা দেন যে, তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
All rights reserved © shirshobindu.com 2021