সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১২:১৯

গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে কোয়ারেন্টাইনের ফাঁদে ব্রিটিশরা

গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে কোয়ারেন্টাইনের ফাঁদে ব্রিটিশরা

/ ৯০
প্রকাশ কাল: সোমবার, ২১ জুন, ২০২১

শীর্ষবিন্দু নিউজ, লন্ডন: ইউরোপের দেশ ফ্রান্স, ইতালি, আয়ারল্যান্ড, রোমানিয়া, স্লভেনিয়া গ্রীষ্মকালীন ছুটি কাটাতে গেলে ব্রিটিশ নাগরিকদের খপ্পরে পড়তে হচ্ছে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে। এ খবর দিয়েছে ডেইলি মেইল।

ইতালিতে ব্রিটিশ নাগরিকদের বাধ্যতামূলক ৫ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে। জার্মানি ও অস্ট্রিয়ায় দল বেঁধে ব্রিটিশদের ট্রিপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কারণ ব্রিটেনে কোভিডে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের ৭৯ শতাংশ সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড বলছে সংক্রমণের ক্ষেত্রে ৯১ শতাংশই ঘটছে ভারতীয় ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে।

যদিও ব্রিটেনে ‘ফ্রিডম ডে’ ঘোষণা বা আরোপিত লকডাউন শিথিলের আরো সপ্তাহ খানেক বাকি তারপরও দেশটির নাগরিকরা দেশের বাইরে ছুটি কাটাতে যাওয়ার জন্যে উন্মুখ হয়ে রয়েছে। কিন্তু বিভিন্ন দেশের বিমান বন্দরে ব্রিটিশ নাগরিকদের নিয়ে যথেষ্ট সতর্কতা নেওয়া হয়েছে। তাদের জন্যে সবুজ, পীতাভ বা লাল তালিকা চিহ্নিত করে রাখা হয়েছে। ইংল্যান্ড গেলেই ফিরে আসার পর রয়েছে কোনো কোনো দেশে ১০ দিনের কোয়ারেন্টাইনের আগাম সতর্কতা।

এসব দেশে অবশ্য অন্যদেশে গমন বা সেখান থেকে ফিরে আসার পর কোভিড সতর্কতা বিধি পালনের বিধি রয়েছে। তবে ইতালি গত শনিবার ব্রিটিশ নাগরিকদের জন্যে ৫দিনের কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক ঘোষণা করা হয়েছে দেশটিতে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট দ্রুত বিস্তারের কারণে। ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড, স্লভেনিয়া, রোমানিয়া এক্ষেত্রে ফ্রান্সকে অনুসরণ করছে। ইতালিতে যেসব ব্রিটিশ নাগরিকদের পীতাভ রংয়ের তালিকাভুক্ত করা হচ্ছে তার মানে তাদের ১০দিনের কোয়ারেন্টাইন সহ দুটি পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। প্রথমদিন ও অস্টমদিনে ফের পরীক্ষা করাতে হবে।

এস্তোনিয়া বলছে, দেশটিতে কোনো ব্রিটিশ নাগরিক উড়াল দেওয়ার ৭২ ঘন্টা আগেই কোভিড নেগেটিভ টেস্ট করাতে হবে। টিকা না দেওয়া থাকলে বাধ্যতামূলক ১০দিনের কোয়ারেন্টাইন অথবা গত ৬ মাসে কোভিড টেস্ট করার কাগজ দেখাতে হবে। গ্রিস বলছে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন এড়াতে বরং ব্রিটিশ নাগরিকদের ৭২ ঘন্টা আগে কোভিড নেগেটিভ টেস্ট করিয়ে নেওয়াই ভাল। জিব্রাল্টার বলছে টিকা পুরোপুরি দিতে হবে। তারপর কোভিড টেস্ট করানোর ৫ দিন পর ফের একই পরীক্ষা করাতে হবে। মাল্টা বলছে দেশটিতে যাওয়ার ৭২ঘন্টা আগে কোভিড নেগেটিভ টেস্ট করাতে হবে। পর্তুগাল ও তুরস্ক এ পরীক্ষার সময়সীমা একই রেখেছে।

তবে স্পেন এখনো ব্রিটিশ নাগরিকদের জন্যে কোনো বিধিনিষেধ আরোপ করেনি। টিকা না দিয়ে ফ্রান্সে গেলে বাধ্যতামূলক ৭ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। আয়ারল্যান্ডে ব্রিটেন থেকে কেউ আসলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে যেতে হচ্ছে। এসব বিধি নিষেধ এড়াতে ব্রিটিশ সরকার দেশটির নাগরিকদের দুটি টিকা বা পুরোপুরি টিকা নেয়ার কর্মসূচি আরো জোরদার করছে যাতে তার সহজেই আগামী মাস থেকে ১৭০টি দেশে ভ্রমণে যেতে পারে।

এক্ষেত্রে বুলগেরিয়া বলছে, ব্রিটিশ নাগরিকদের কোভিড টিকার দ্বিতীয়টি নেওয়ার ১৪ দিন পর দেশটিতে আসতে হবে। আর যদি টিকা দেওয়া না থাকে তাহলে কোভিড নেগেটিভ এমন পরীক্ষাপত্র দেশটিতে উড্ডয়নের ৭২ ঘন্টা আগেই করতে হবে। ক্রোশিয়ায় এক্ষেত্রে সময় কমিয়ে ৪৮ ঘন্টা করা হয়েছে। সাইপ্রাসে যেতে হলে হয় টিকার ছাড়পত্র বা ৭২ ঘন্টা আগে পরীক্ষা করতে হবে ব্রিটিশ নাগরিকদের। ডেনমার্ক একই সময় সীমা ৪৮ ঘন্টা বেঁধে দিয়ে বলছে যদি এ ব্যতয় ঘটে তাহলে ব্রিটিশ নাগরিকদের সঙ্গত কারণ দেখাতে হবে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com