মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:১২

মুরাদের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ দিয়ে ৯৯৯ এ ফোন করেন স্ত্রী

মুরাদের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ দিয়ে ৯৯৯ এ ফোন করেন স্ত্রী

শীর্ষবিন্দু নিউজ, ঢাকা / ৭৯
প্রকাশ কাল: শুক্রবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২২

ব্যাপক আলোচিত ও বিতর্কিত সাবেক তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতন এবং প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ এনেছেন তার স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান। বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজের পরিচয় গোপন করে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশের কাছে এ অভিযোগ করেন তিনি।

ও (ডা. মুরাদ হাসান) আমাকে নির্যাতন করছে। আমাকে মেরে ফেলবে বলেছে। প্লিজ আমাকে বাঁচান। ও আমাকে মেরে ফেলবে।’ বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে এভাবেই জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে জীবন বাঁচানোর আকুতি জানান সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান। জানা যায়, আজ বিকেলে ৩ ঘটিকায় ৯৯৯ এ ফোন করেন মুরাদের স্ত্রী। ফোন ধরেন একজন কনস্টেবল সমমর্যাদার অপারেটর। মুরাদের স্ত্রী তাকে বলেন, ‘আমি ডা. জাহানারা। ধানমন্ডি থেকে বলছি। আমার স্বামী ডা. মুরাদ, এমপি মুরাদ।

এপাশ থেকে আপনাকে কীভাবে সহযোগিতা করতে পারি জানতে চাইলে মুরাদের স্ত্রী বলেন, আমার স্বামী কয়েকদিন ধরেই আমার সঙ্গে খারাপ আচরণ করছেন। কথায় কথায় আমাকে হুমকি ধমকি দিচ্ছেন। শারীরিক নির্যাতনের শিকার আমি। আমাকে বাঁচান। ও বলেছে আমাকে মেরে ফেলবে। আমাকে ও আমার সন্তানদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করছে। আমার ওপর এখন হাত তুলতে চেয়েছিল। আমাকে আপনারা বাঁচান। আমাকে উদ্ধার করুন। প্লিজ পুলিশ পাঠান, এখনি পুলিশ পাঠান।’

৯৯৯ এর অপারেটর তখন মুরাদের স্ত্রীর কাছে তার বাসার ঠিকানা চান। তখন ঠিকানা দিলে ৯৯৯ থেকে ধানমন্ডি থানার ডিউটি অফিসারকে ফোন করা হয়। ডিউটি অফিসার তখন মুরাদের ধানমন্ডি ২৮ (পুরাতন) নম্বরের বাসায় পুলিশ পাঠায়।

এ বিষয়ে ধানমন্ডি থানার তদন্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, আজ বেলা ৩টার দিকে ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে ওই বাসায় আমাদের একটি টিম পাঠানো হয়। তবে বাসায় গিয়ে আমরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বর্তমান এমপি মুরাদ সাহেবকে পাইনি। মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ তুলে সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছেন তার স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

থানা সূত্র জানায়, দুপুরে ডা. জাহানারা ফোন করে জানান, তাকে মারধর করা হচ্ছে। এমনকি প্রাণনাশের হুমকিও দেয়া হচ্ছে। জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ থেকে বিষয়টি ধানমন্ডি থানা পুলিশকে জানানো হলে এরপরই পুলিশের একটি টিম সাবেক প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বাসায় যায়। এ সময় স্ত্রী জাহানারা স্বামীর বিরুদ্ধে নির্যাতন ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ আনেন। ডা. মুরাদ হাসানকে তখন বাসায় পায়নি পুলিশ।

পরে পুলিশের সঙ্গে থানায় এসে নিজের এবং সন্তানদের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। জিডিতে জাহানারা বলেন, ধানমন্ডির ৩০/এ ফ্ল্যাট-ডি-১ রোড নতুন ১৫ নম্বর, পুরাতন ২৮ নম্বর বাসায় থাকেন তারা। ডা. মুরাদ হাসানের সঙ্গে ১৯ বছর আগে তার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দু’টি সন্তান রয়েছে।

জিডিতে বলেন, আমার স্বামী বর্তমানে সরকারের এমপি এবং সাবেক প্রতিমন্ত্রী। সাম্প্রতিক সময়ে ডা. মুরাদ হাসান কারণে-অকারণে আমাকে এবং সন্তানদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করছেন। হত্যার হুমকিও দিচ্ছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর আনুমানিক ২টা ৪৫ মিনিটে আগের ন্যায় আমাকে এবং আমার সন্তানদের গালিগালাজ করেন ডা. মুরাদ। মারধর করার জন্য উদ্যত হলে আমি জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল করি। এ সময় ধানমন্ডি থানা পুলিশ উল্লিখিত বাসার ঠিকানায় পৌঁছলে ডা. মুরাদ হাসান বাসা থেকে বেরিয়ে যান।

বিতর্কিত বক্তব্য, চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে টেলিফোনে ধর্ষণের হুমকি দেয়ার টেপ ফাঁস ও বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের মেয়ে জাইমা রহমানকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যে পর প্রতিমন্ত্রীর পদ ছাড়েন মুরাদ হাসান। এরপর দলীয় পদ ছাড়তে হয় তাকে। প্রতিমন্ত্রী ও দলীয় পদ হারানোর পর দেশ ছাড়ার চেষ্টা করেন তিনি। ঢাকা থেকে কানাডা যাওয়ার পর সেখানে বিমানবন্দর থেকেই ফেরত পাঠানো হয় তাকে। পরে বাধ্য হয়ে দেশে ফিরে আসেন মুরাদ। দেশে আসার পর তিনি আর প্রকাশ্যে আসেননি। কোথায় অবস্থান করছেন এটিও স্পষ্ট ছিল না। স্ত্রীর অভিযোগে স্পষ্ট হয় যে, তিনি তার ধানমন্ডির বাসায়ই অবস্থান করছিলেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2021