মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:২২

বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় প্রতিরক্ষা সংলাপ শিগগিরই

বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় প্রতিরক্ষা সংলাপ শিগগিরই

নিউজ ডেস্ক, লন্ডন / ৮৪
প্রকাশ কাল: বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২

বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে শিগগিরই দ্বিতীয় প্রতিরক্ষা সংলাপ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম। চলতি বছরের শুরুতে দুদেশের মধ্যে প্রথম প্রতিরক্ষা সংলাপ সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

লন্ডনের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) সেদেশে বাংলাদেশ হাইকমিশন আয়োজিত সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০২২ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ওইদিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যসহ বীর শহিদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বাংলাদেশ হাইকমিশন যথাযোগ্য মর্যাদায় ‘সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০২২’ পালন করে।

লন্ডনে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে সাইদা মুনা তাসনীম বলেন, বঙ্গবন্ধু ১৯৭২ সালে ধর্মনিরপেক্ষ এবং প্রগতিশীল মূল্যবোধভিত্তিক বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসামান্য ও দূরদর্শী নেতৃত্বে যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রতিরক্ষা, নিরাপত্তা ও কৌশলগত সম্পর্ক গত এক দশকে আরও সুদৃঢ় হয়েছে। দুদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কোন্নয়ন সহায়তা-কেন্দ্রিক থেকে কৌশলগত অংশীদারিত্বে উন্নীত হয়েছে।

তিনি বলেন, ১৯৭২ সালে যুক্তরাজ্যে প্রথম ক্যাডেট প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দুদেশের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক স্থাপিত হয়। শহিদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল ছিলেন এই ক্যাডেট প্রশিক্ষণের অন্যতম অংশগ্রহণকারী।

‘ফোর্সেস গোল-২০৩০’ বাস্তবায়নসহ প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বহুমাত্রিক সহযোগিতা ভবিষ্যতে আরও জোরদার করার ব্যাপারে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন হাইকমিশনার।

তিনি বলেন, এ বছরের শুরুতে দুদেশের মধ্যে প্রথম প্রতিরক্ষা সংলাপ সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। শিগগির দ্বিতীয় প্রতিরক্ষা সংলাপ শুরু হবে।

বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সশস্ত্র বাহিনীর অসাধারণ ভূমিকার কথা উল্লেখ করে সাইদা মুনা তাসনীম বলেন, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরাও নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

অনুষ্ঠানে লন্ডন হাইকমিশনের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মঈন খান স্বাগত বক্তব্য দেন। এতে আরও বক্তব্য দেন- কনজারভেটিভ ফ্রেন্ডস অব ইন্ডিয়ার প্রধান পৃষ্ঠপোষক লর্ড রামি রেঞ্জার ও যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের উপ-প্রধান অ্যামি সিনিয়র।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের বিদেহী আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এরপর বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস এবং সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিষ্ঠা ও দেশে-বিদেশে এর বিশেষ ভূমিকার ওপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন হয়।

অন্যান্যের মধ্যে অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্যে প্রবাসী বাংলাদেশের বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, কূটনৈতিক ফোরামের সদস্য, বিভিন্ন দেশের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা এবং বাংলাদেশি-ব্রিটিশ কমিউনিটির বিশিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2022